The news is by your side.

সৌদি আরবে নিজের পছন্দের রেস্তোরাঁ খুলছেন রোনালদো

0 97

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বিশ্বসেরাদের একজন হওয়ার পাশাপাশি একজন সফল ব্যবসায়ীও । বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে রেস্তোরাঁ, ফিটনেস সেন্টার, পোশাক এবং সুগন্ধি ব্র্যান্ডসহ নানা খাতে বিনিয়োগ আছে তার। এবার সৌদি আরবে ব্যবসায় নামছেন এই পর্তুগিজ তারকা।

চলতি বছরের শুরুতে ইউরোপিয়ান লিগ ছেড়ে সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসরে যোগ দিয়েছেন পাঁচটি ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো। মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে মাঠে রাজত্ব করতে শুরু করে দিয়েছেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাসের এই ফরোয়ার্ড। এবার সেখানে একটি শাখা আরব দেশটিতে খোলার ঘোষণা দিয়েছেন সিআরসেভেন।

গতবছর এমএবিইএল হসপিটালিটি গ্রুপের হাত ধরে টোটো নামে রেস্তোরাঁর যাত্রা শুরু করে। এই ব্যবসায় বিশাল পরিমাণ বিনিয়োগ রয়েছে রোনালদোর। এ ছাড়াও টেনিস তারকা রাফায়েল নাদাল এবং দুই বাস্কেটবল তারকা পাউ গাসোল ও রুডি ফার্নান্দেজেরও বিনিয়োগ আছে সেখানে। তাতে এরই মধ্যে মাদ্রিদের সবচেয়ে জনপ্রিয় ইতালিয়ান রেস্তোরাঁয় পরিণত হয়েছে টোটো।

রোনালদোর নিজেরও বিশেষ পছন্দের রেস্তোরাঁ টোটো। এই রেস্তোরাঁকেই এখন সৌদি আরবে নিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন পর্তুগিজ তারকা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্টে সিআরসেভেন লিখেছেন, ‘মাদ্রিদে আমার পছন্দের ইতালিয়ান রেস্তোরাঁটির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছি। শিগগিরই এটি মধ্যপ্রাচ্যেও যাত্রা শুরু করবে।’

রেস্তোরাঁ ব্যবসার সঙ্গে রোনালদোর সম্পর্কটা বেশ পুরোনো। এর আগে একাধিক রেস্তোরাঁয় বিনিয়োগ করেছেন সাবেক এই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। শুধু লিসবনেই আছে একাধিক রেস্তোরাঁ। লিসবনে যেসব রেস্তোরাঁয় রোনালদো বিনিয়োগ করেছেন, তার মাঝে আ তাসকুইনহা দো লাগারতো, সিআরসেভেন কর্নার বার অ্যান্ড বিস্ত্রো, লা এক্সপো দোলচে ভিতা এবং এস্তাদিও দা লুজ উল্লেখযোগ্য।

এ ছাড়া আঙ্কোরা ভায়েলেতা, থ্রিভুনা স্পোর্টস বারের মতো রেস্তোরাঁয়ও আছে রোনালদোর বিনিয়োগ। তবে সৌদি আরবে টোটো দিয়ে ব্যবসায়িক যাত্রা শুরু করতে গেলেও, মধ্যপ্রাচ্যে এটিই রোনালদোর মালিকানাধীন প্রথম রেস্তোরাঁ নয়। এর আগে বিশ্বকাপের সময় পতুর্গাল দলের সতীর্থদের নিজের রেস্তোরাঁ তাতেল দে দোহাতে খাওয়াতে নিয়ে গিয়েছিলেন রোনালদো।

80%
Awesome
  • Design

Leave A Reply

Your email address will not be published.