The news is by your side.

সারাদেশে কোয়ারেন্টাইনে ২৩১৪, আইসোলেশনে ১০

0 218

 

 

দেশের বিভিন্ন জেলায় মোট ২ হাজার ৩১৪ জন কোয়ারেন্টাইনে এবং ১০ জন আইসোলেশনে রয়েছেন বলে জানিয়েছে রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)।

রোববার রাজধানীর মহাখালীর আইইডিসিআর এর কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য জানান।

নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে আজ আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা বলেন, এখন পর্যন্ত দেশের ৮ বিভাগে ২ হাজার ৩১৪ জন হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন ৪ জন। আর আইসোলেশনে আছেন ১০ জন।

আইইডিসিআরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে আরও দুজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। তাঁরা দুজনই প্রবাসী। সম্প্রতি তাঁদের একজন ইতালি এবং আরেকজন জার্মানি থেকে দেশে এসেছেন। তারা দুজনই পুরুষ। তাদের একজনের বয়স ২৯ ও অপরজনের ৪০ বছরের কিছু বেশি। সম্প্রতি বিদেশফেরত এ দুজনের জ্বর ও সর্দি ছিল। নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৪০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি উচ্চরক্তচাপ ও ডায়াবেটিসে ভুগছেন।

জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা জানান , ইতালি ফেরত ১৪২ জনের সবাই প্রশাসনের সহায়তায় বাড়ি ফিরেছেন। অন্য যেসব ফ্লাইটে ইতালি প্রবাসীরা ফিরেছেন তাদের সবার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত ২৩১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এদের মধ্যে পূর্বে জানানো পাঁচজনের শরীরেই করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

তিনি আরও জানান, হোম কোয়ারেন্টাইনের ক্ষেত্রে আপোস করা হবে না। কেউ হোম কোয়ারেন্টাইন না মানলে তাদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

আইইডিসিআর এর তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত পাঁচজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুইজন সুস্থ হয়ে এরই মধ্যে বাড়ি ফিরে গেছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.