The news is by your side.

সমুদ্রসৈকতে জয়া-চন্দন!

0 71

 

জামাইষষ্ঠীর দিনটা কেমন কাটাচ্ছেন জয়া আহসান আর চন্দন রায় সান্যাল? ভাবতে বাধ্য করেছেন পরিচালক অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরী।

দায়িত্ব নিয়ে বিশেষ দিনে দুই তারকা অভিনেতার জীবনটাই বদলে দিলেন তিনি। অনিরুদ্ধ তাঁদের নিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন সমুদ্রসৈকতে, তাজপুরে। বুধবার থেকে সেখানেই শুটিং শুরু ‘ডিয়ার মা’-এর। দিন কয়েক তিনি টলিগঞ্জের স্টুডিয়োয় টানা শুটিং সেরেছেন। এ বার আউটডোর শুটে ব্যস্ত গোটা টিম।

সমুদ্রের ধারেও কি এমনই পরিস্থিতি? প্রশ্ন রেখেছিল আনন্দবাজার অনলাইন। অনিরুদ্ধের কথায়, ‘‘এখানে আবহাওয়া অনেক আরামদায়ক। ততটাও গরম নেই। সন্ধ্যার পরে সমুদ্র থেকে একটা ঠান্ডা বাতাস উঠে আসে। সেই হাওয়া গায়ে মেখে আমরা শুটিংয়ে ব্যস্ত।’’

সেই দৃশ্যের জন্য তাজপুরে উপস্থিত জয়া ও চন্দন। এই ছবির মুখ্য দুই অভিনেতা। সঙ্গী তাঁদের পর্দার মেয়ে। শিশু অভিনেতার নাম অবশ্য পরিচালক কিছুতেই ভাঙতে রাজি নন। যেমন জানাননি, ঠিক কী ধরনের দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করছেন তিনি। জানিয়েছেন, এত দিনে সকলে জেনে গিয়েছেন, মা-বাবা আর মেয়ের সঙ্গে সমান্তরাল ভাবে অন্য সম্পর্কও জায়গা করে নেবে ছবিতে। আউটডোরে তিন চরিত্রের সম্পর্ককে ক্যামেরায় বন্দি করা হবে। পরিচালকের দাবি, খুবই গুরুত্বপূর্ণ দৃশ্যগ্রহণ চলছে।

তাজপুর ছাড়াও শুটিং হবে মন্দারমণিতে। অনিরুদ্ধ জানিয়েছেন, শুক্রবার পর্যন্ত শুটিং করবেন তিনি। সম্প্রতি, এই ছবির শুটিং দেখতে মুম্বই থেকে কলকাতায় উড়ে এসেছিলেন অভিনেত্রী অহনা কুমরা। তাঁকেও কি অতিথি চরিত্রে দেখা যাবে? প্রশ্ন ছিল পরিচালকের কাছে। তিনি বিষয়টি অস্বীকার করে গিয়েছেন। একই কথা এর আগে আনন্দবাজার অনলাইনকে জানিয়েছিলেন অহনাও। অভিনেত্রীর দাবি, অনিরুদ্ধ ও চন্দন তাঁর খুব ভাল বন্ধু।

তাঁদের সঙ্গে দেখা করতেই কলকাতায় এসেছিলেন তিনি। ছবিতে জয়া, চন্দন ছাড়াও অভিনয় করছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, দক্ষিণী অভিনেত্রী পদ্মাপ্রিয়া জানকীরমণ প্রমুখ।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.