The news is by your side.

সজীব ওয়াজেদ জয় এবং সোহেল তাজকে নিয়ে কি ভাবছে তৃণমূল আওয়ামী লীগ?

0 80

 

 

বিশেষ প্রতিবেদন

দীর্ঘদিন ধরেই আলোচনায় আওয়ামী লীগের  তরুণ নেতৃত্ব।  ২০১৯ সালের জাতীয় কাউন্সিলে বিষয়টি আরো বেশি সামনে আসে।  দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনাও তরুণ নেতৃত্বের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।  কার্যকরী কমিটিতে অবশ্য এর প্রতিফলন ঘটেনি শেষ পর্যন্ত ।

চলতি বছরের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলে ফের নতুন এবং তরুণ নেতৃত্বের বিষয়টি আলোচনার টেবিলে ঘুরপাক খাচ্ছে । প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কার্যক্রমে এখনো সক্রিয় হন নি।  তবে তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে সজীব ওয়াজেদ জয়কে নিয়ে বিপুল উৎসাহ রয়েছে।  তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসাহ রয়েছে বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের ছেলে তানজিম আহমেদ সোহেল তাজকে নিয়ে।

আপাত বাস্তবতায় দলীয় সভাপতির পদে শেখ হাসিনার বিকল্প দেখছেন না কেউই।  শেখ হাসিনা সভাপতির দায়িত্ব পালনে অসম্মতি  জানালেও শেষ পর্যন্ত নেতাকর্মী সমর্থকদের দাবি উপেক্ষা করা তার পক্ষে হয়তো সম্ভব হবে না । এর পেছনে বড় যে কারণ-  শেখ হাসিনা দলীয় সভাপতির দায়িত্ব ছেড়ে দিলে সংগঠনে বিভাজন সৃষ্টি হতে পারে । নেতাকর্মীদের স্পষ্ট বার্তা ,আওয়ামী লীগের শেখ হাসিনার বিকল্প একমাত্র শেখ হাসিনা নিজেই ।

শেখ হাসিনা যদি আওয়ামীলীগের আগামী কাউন্সিলে সভাপতি নির্বাচিত হন- সেক্ষেত্রে সজীব ওয়াজেদ জয়কে সাধারণ সম্পাদকের পদে বসানো ঠিক হবে না বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত ।

মা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক; যোগ্যতার বিচারে ঠিক থাকলেও সাদাচোখে বিষয়টি হয়তো অনেকেই সমালোচনা চোখে দেখতে পারেন । সেক্ষেত্রে বিকল্প কি?

সাধারণ সম্পাদক পদে জাহাঙ্গীর  কবির  নানক, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া,  আব্দুর রাজ্জাক,  হাছান মাহমুদ,  দীপু মনি, খালিদ মাহমুদ চৌধুরীসহ অনেকেই আলোচনায় রয়েছেন । শেষ পর্যন্ত এদের মধ্য থেকেই হয়তো কেউ একজন সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হবেন । সে ক্ষেত্রে সজীব ওয়াজেদ জয়, এবং সোহেল তাদের স্থান কোথায়?

আব্দুল আজিজ নামে কিশোরগঞ্জের একজন প্রবীণ আওয়ামী লীগকর্মী ভিশন নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আওয়ামী লীগকে আগামী দুই দশকের  বাস্তবতা মাথায় রেখে নেতৃত্ব নির্বাচন করতে হবে । জ্যেষ্ঠ নেতাদের পাশাপাশি মেধাবী জনসম্পৃক্ত এবং গ্রহণযোগ্য তরুণদের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে নিয়ে আসা জরুরি ।

দলের নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্র এখনো পর্যন্ত সজীব ওয়াজেদ জয় কিংবা সোহেল তাজকে নিয়ে কোন কথা না বললেও দেশের তৃণমূল পর্যায়ের বেশিরভাগ কর্মীদের প্রত্যাশা আগামী ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত জাতীয় কাউন্সিলে সজীব ওয়াজেদ জয় এবং তানজিম আহমেদ সোহেল তাজকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নিয়ে আসবেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা। যা দেশের ঐতিহ্যবাহী  রাজনৈতিক সংগঠন আওয়ামী লীগে নতুন করে প্রাণ সঞ্চার করবে ।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.