The news is by your side.

শৈল্পিক ক্যানভাসে মিথিলার উষ্ণতা , বনলতা সেন!

0 434

 

 

চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন ঢাকায় ‘আটকা’ পড়েছিলেন তিনি। এরই মধ্যে মেয়ে আইরা তাহরিম খানকে সাথে নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থায় সড়ক পথে কলকাতায় গিয়েছেন মিথিলা। মিথিলাকে নিতে স্বামী সৃজিত মুখার্জি বেনাপোল স্থলবন্দরের ওপারে ভারতীয় সীমান্ত পেট্রাপোলে চলে আসেন। বলা যায় দীর্ঘদিনের পর এই মিলন মেলা। স্বাভাবিকভাবেই জীবনানন্দকে হৃদয়ে ধারণ করতে পারেন মিথিলা, বলতেই পারেন— সব পাখি ঘরে আসে— সব নদী—  আর সঙ্গে ঘরে ফেরার ছবি। সেই বনলতার সঙ্গে একাত্ম হয়েই যেন অনিন্দ্যসুন্দর একটি ছবি সামাজিকমাধ্যমে শেয়ার করেছেন মিথিলা।

ফেসবুকে মাত্র ৬ ঘণ্টাতেই ছবিটিতে মোট রিঅ্যাক্ট পড়েছে অন্তত ৫১ হাজার, আর কমেন্ট ৫ হাজারের বেশি। তবে স্বাভাবিকভাবেই এদেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের একটি অংশ সবখানে যেমন নেতিবাচক মন্তব্য করেন, ঠিক তেমনই মিথিলার এই ছবিতেও অনেকের নেতিবাচক মন্তব্য রয়েছে। শুধু শাড়ি পরে শরৎচন্দ্র, রবীন্দ্রনাথ আমলের কিংবা জীবনানন্দের কল্পনার অনুকরণে বনলতা রূপে তোলা এই ছবিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া থাকলেও, বেশিরভাগ ফলোয়ারই ছবিটিকে পছন্দের তালিকায় নিয়েছেন।

ক্যাপশনে মিথিলা লেখেন, সব পাখি ঘরে আসে-সব নদী- ফুরায় এ-জীবনের সব লেনদেন; থাকে শুধু অন্ধকার, মুখোমুখি বসিবার বনলতা সেন।’ যা কবি জীবনানন্দ দাশের বিখ্যাত কবিতার দুটি লাইন। মডেল ও অভিনেত্রী মিথিলা গতকাল (২৩ আগস্ট) রাতে ইনস্টাগ্রামে এই দুটি লাইনের সঙ্গে শেয়ার করেছেন আবেদন ছড়ানো ওই ছবি।

সেই ছবিতে মিথিলাকে দেখা গেল ব্লাউজহীন শাড়িতে। খোলা চুলে মোহনীয় দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন সুন্দরী এই মডেল।

ছবিটি প্রকাশ হতেই বেশ হৈচৈ ফেলে দিয়েছে। যাতে এখন পর্যন্ত লাইক পড়েছে ৫৪ হাজার ৭৯২টি। তবে ফেসবুকে লাইক পড়েছে আরও বেশি, প্রায় ৭৫ হাজার। মন্তব্যের ঘরে প্রায় ৮ হাজার মানুষ তার ছবি ও পোস্ট নিয়ে লিখেছেন। দুই বাংলার অনেক তারকাও মিথিলার ছবি নিয়ে নিজেদের মত প্রকাশ করেছেন। এটি শেয়ার করেছেন ৬৯১ জন।

জীবনানন্দের ‘বনলতা সেন’ রূপে মিথিলাকে দেখে তার অনেক অনুসারী অবশ্য ছবিটির প্রশংসা করছেন। অনেকে আবার সমালোচনা করতেও ছাড়েন নি। তারা প্রশ্ন তুলছেন অভিনেত্রীর স্বল্পবসন নিয়ে। তবে প্রংশসা বা সমালোচনা- কোনোকিছুতেই জবাব দিচ্ছেন না মিথিলা।

সৃজিতের নতুন কোনো সিনেমায় দেখা যেতে পারে মিথিলাকে। সেজন্যই বেশ আয়োজন করে তোলা হয়েছে এসব ছবি। হয়তো তা চরিত্রেরই প্রয়োজনে। তবে তা কতোটা সত্য- তা জানেন বনলতারূপী মিথিলা আর তার বর্তমান স্বামী সৃজিতই।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.