The news is by your side.

লালকেল্লা-তাজমহল ভেঙে ফেলুন:   নাসিরুদ্দিন শাহ

0 81

হিন্দুত্ববাদীদের কটাক্ষ করে পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত ভারতের বিশিষ্ট অভিনেতা নাসিরউদ্দিন শাহর প্রশ্ন, ‘মোগলদের সবকিছুই যদি এত খারাপ, তাহলে তাজমহল, লাল কেল্লা বা কুতুব মিনার সাজিয়ে রাখা হয়েছে কেন? ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হোক।’

ভারতের ইংরেজি দৈনিক দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই মন্তব্যের পাশাপাশি প্রবীণ অভিনেতা কটাক্ষ করে বলেছেন, লাল কেল্লাকে এত পবিত্র কেন মনে করা হয়? কেন ওই স্থাপত্যের এত গুরুত্ব? ওটা তো একজন মোগলের তৈরি। তিনি বলেন, এটা ঠিক, এ দেশের ইতিহাসে মোগলদের গৌরবান্বিত করা হয়েছে। কিন্তু তাদের মাথায় তুলে নাচার যেমন প্রয়োজন নেই, তেমনি তাদের খলনায়ক বানানোরও দরকার নেই।

বেসরকারি টেলিভিশন সংস্থা জি–৫–এর জন্য তৈরি ‘তাজ’ নামের একটি ওয়েব সিরিজে নাসিরউদ্দিন শাহ মোগল সম্রাট আকবরের চরিত্রে অভিনয় করছেন, তা নিয়ে কথা বলার সময় তিনি নতুন করে ভারতের ইতিহাস রচনার উদ্যোগ প্রসঙ্গে একাধিক মন্তব্য করেন।

নাসির জানান, সুস্থ বিতর্কের পরিসর এই দেশে নেই। যাঁরা তাঁর বিরোধিতা করতেই অভ্যস্ত, তাঁর তাঁর বক্তব্যের অভিমুখটাই বুঝতে পারেন না। যুক্তিবুদ্ধি, ইতিহাস চেতনার অভাব বাড়ছে। ঘৃণাও বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। এই বোধ থেকেই ভারতের এক অংশ মানুষ অতীতের সব কিছুই নিন্দার চোখে দেখে। বিশেষ করে মুঘলদের। এটা এখন তাঁকে ক্ষুব্ধ করার চেয়ে আমোদ দেয় বেশি। স্পষ্টতই শ্লেষ ঝরে পড়ে নাসিরের কণ্ঠে। অভিনেতা বলেন, ‘গত কয়েক বছর ধরে মুঘল যুগকে নিরন্তর অপমান করে যাচ্ছেন শাসকদল, সরকারের মন্ত্রীরা। চল্লিশটি শহরের নাম বদলে গিয়েছে গত কয়েক বছরে, যেগুলি মুঘলদের নামের স্মৃতি বহন করছিল।’

শাহ স্বীকার করে নেন, পাঠ্য ইতিহাসে দেশীয় ঐতিহ্যের তুলনায় মুঘলদের প্রতি বেশি পক্ষপাত দেখানো হয়েছে। যে ইতিহাস তাঁরা পড়েছেন তা মূলত ইংরেজরাই লিখেছেন বলে ভারতীয় ঐতিহ্য, যেমন গুপ্ত সাম্রাজ্য ইত্যাদির কথা সে ভাবে আসেনি বলে তিনি মনে করেন। নাসিরের মতে “মানুষের ভাবনা কিয়দংশে সত্যি। আমাদের দেশীয় ঐতিহ্যের তুলনায় মুঘলরা হয়তো মহিমান্বিত হয়েছেন ইতিহাসে, কিন্তু তাঁদের খলনায়ক বানানোও অযৌক্তিক।”

‘তাজ : ডিভাইডেড বাই ব্ল্যাড’ সিরিজে নাসিরুদ্দিন শাহ ছাড়াও অভিনয় করেছেন ধর্মেন্দ্র আসিম গুলাটি, তাহা শাহ, অদিতি রাও হায়দারি প্রমুখ। মুঘল সাম্রাজ্যের অন্দরে ঘটা না-জানা কথা, উত্তরাধিকার দ্বন্দ্ব ইত্যাদিই এই সিরিজের মূল বিষয়। সিরিজটি মুক্তি পাবে আগামী ৩ মার্চ।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.