The news is by your side.

ভারতীয় বলে হলিউডে অনেক বাধার সম্মুখীন হয়েছি: প্রিয়ঙ্কা চোপড়া

0 157

প্রিয়ঙ্কা চোপড়া । হলিউডে চুটিয়ে কাজ করছেন। ‘কোয়ান্টিকো’ দিয়ে হাতেখড়ি তাঁর। তার পর ‘বেওয়াচ’, ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজ়ারেকশন্‌স’-এর মতো ছবিতে কাজ করেছেন প্রিয়ঙ্কা। এ বার মার্ভেল খ্যাত রুশো ব্রাদার্সের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন দেশি গার্ল।

কল্পবিজ্ঞান ও স্পাই থ্রিলারের মিশেলে তৈরি সিরিজ় ‘সিটাডেল’। বহুভাষী এই সিরিজ়ে মুখ্য চরিত্রে দেখা যেতে চলেছে প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাসকে। আগামী এপ্রিলেই ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেতে চলেছে এই সিরিজ়।

‘সিটাডেল’-এর হাত ধরে হলিউডের প্রথম সারির তারকাদের তালিকায় ঢুকে পড়েছেন প্রিয়ঙ্কা। তবে এই টেবিলে জায়গা পেতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে হয়েছে তাঁকে, জানালেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাস। প্রথম দিকে হলিউডে এসে বৈষম্যের সম্মুখীনও হয়েছেন তিনি, এক অনুষ্ঠানে খোলসা করেন প্রিয়ঙ্কা।

প্রিয়ঙ্কা জানান, অনেক পরিশ্রম করে, একাধিক অডিশন দিয়ে প্রযোজক ও পরিচালকদের ভরসা অর্জন করেছেন তিনি। সঙ্গে প্রিয়ঙ্কা বলেন, ‘‘স্ট্রিমিং অনেকটা এই আঞ্চলিক ধারণা বদলাতে সাহায্য করেছে। স্ট্রিমিং আসার পরে শিল্পের বিশ্বায়ন জরুরি হয়ে পড়েছিল। ‘ভারতীয় অভিনেত্রী বলে আমার দক্ষতা সীমাবদ্ধ’, স্ট্রিমিং আসার পরে এই চিন্তার বদল ঘটেছে।’’ প্রিয়ঙ্কার মতে, তাঁর সহশিল্পীরাও একই ভাবে নিজেদের ‘কমফোর্ট জ়োন’ থেকে বেরিয়ে অনবরত বিভিন্ন ধরনের কাজ করেছেন, যাতে গোটা বিশ্বের দর্শকের কাছে শিল্পী হিসাবে তাঁদের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ে।

স্ট্রিমিংয়ের যুগে বিশ্বায়নের সৌজন্যে নতুন মঞ্চ পেয়েছেন বহু শিল্পী। আঞ্চলিকতার সীমানা ছাড়িয়ে গোটা বিশ্বের দর্শকের কাছে পৌঁছে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছেন তাঁরা। তবে এই বিশ্বায়ন সবে শুরু, আগামী দিনে বিনোদনের জগতে আরও অন্তর্ভুক্তি দেখা যাবে বলে আশা প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার।

Leave A Reply

Your email address will not be published.