The news is by your side.

বিএনপি বাংলাদেশের রাজনীতি থেকে বিলীন হয়ে যাবে : তোফায়েল

0 234

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান, সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, `আগামী ৫ বছরে বিএনপি বাংলাদেশের রাজনীতি থেকে মুসলিম লীগ, ভাষাণীর ন্যাপ এবং বিলুপ্ত অন্য দলের মতো বিলীন হয়ে যাবে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে ভোলা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ভোলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে মানুষকে নির্যাতন করেছে। মা বোনের ইজ্জত লুট করেছে। সুস্থ সবল মানুষের চোখ তুলে নিয়েছে। এজন্য মানুষ তাদের কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। বিএনপি এখন দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ নেই।’

তিনি বলেন, ‘২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা করেছিলো। আইভি রহমানসহ ২৪ জন মৃত্যুবরণ করেছে। সেই মামলায় অনেকের ফাঁসির হুকুম হয়েছে। অনেকের যাবজ্জীবন সাজাও হয়েছে। তার মধ্যে খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমান একজন। যে লোকটা খুন মামলার আসামি তাকে বানিয়েছে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান। ওরা মনে করে বাংলাদেশের মানুষ বোকা।’

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘সে (তারেক রহমান) আবার দলের নেতাদের নমিনেশন দেওয়ার জন্য ইন্টারভিউ নেয়। যে টাকা বেশি দেয় সে মনোনয়ন পায়। যে পরীক্ষিত বিএনপি নেতা টাকা দেয়নি, সে মনোনয়ন পায়নি। যার ফল হলো বিএনপি মাত্র ৬টা আসনে বিজয়ী হয়েছে। এভাবে একদিন বিএনপি বিলীন হয়ে যাবে।’

তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, ‘যে দল (বিএনপি) অর্থের বিনিময়ে দলীয় মনোনায়ন দেয়, মানুষকে খুন করে। যেই দলের নেত্রী দুনীর্তি মামলার আসামি হয়ে জেলে। যাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দন্ডপ্রাপ্ত আসামি, সেই দলকে মানুষ কখোনো ভোট দেয় না।’

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি আজকে দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ নেই। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা আজ বিশ্বের শ্রেষ্ঠ নেতা। তিনি বাংলাদেশের গ্রামকে শহর করেছেন। পদ্মা ব্রিজ করে চলেছেন। তার শাষণ আমলে দেশে প্রচুর উন্নয়ন হয়েছে। বর্তমান সরকারের আমলে ভোলায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। মৃত্যুর দিন পর্যন্ত আমি আপনাদের সঙ্গে থাকবো।

ভোলা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোশারেফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মমিন টুলু, উপজেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. ইউনুছ, জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকিব, শিবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, আলী নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বশির আহমেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.