The news is by your side.

ফেসবুকে কোটির ক্লাবে তৃতীয় তারকা হিসেবে প্রবেশ করলেন মেহজাবীন

সবার আগে ফেসবুকে কোটি অনুসারীর সংখ্যা পূর্ণ হয় পরীমনির, পরে হানিফ সংকেতের

0 194

 

মেহজাবীন চৌধুরী। নিয়মিতই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানা ধরনের কনটেন্ট পোস্ট করেন । যার মধ্যে থাকে ছবি, কাজের খবর থেকে ফটোশুট। সেই ফেসবুকে মেহজাবীনের অনুসারীর সংখ্যা এক কোটির মাইলফলক স্পর্শ করল। মঙ্গলবার তাঁর ফেসবুকে গিয়ে দেখা যায় অনুসারীর সংখ্যা ১০ মিলিয়ন ছুঁয়েছে।

দেশের শোবিজ তারকাদের মধ্যে সবার আগে ফেসবুকে কোটি অনুসারীর সংখ্যা পূর্ণ হয় পরীমনির। পরে হানিফ সংকেতের অনুসারীর সংখ্যাও কোটি ছাড়ায়। এক কোটির ক্লাবে তৃতীয় তারকা হিসেবে প্রবেশ করলেন মেহজাবীন। ফেসবুকে ভক্তদের এমন ভালোবাসায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মেহজাবীন।

‘বড় ছেলে’, ‘রেডরাম’ খ্যাত এই অভিনেত্রী অবশ্য ফেসবুক বা অনুসারীর সংখ্যা কখনোই ভাবেন না। তাঁর একটাই কথা ভক্তদের জন্য ভালো কাজ করে যেতে চান। তিনি বলেন, ‘এটা আমার জন্য সম্মানের। আমি সব ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে কৃতজ্ঞ।

তাঁদের ভালোবাসায় আজ আমি মেহজাবীন হয়েছি। তারা সব সময় আমাকে চলার পথে সাপোর্ট করেছেন। তাঁদের এক কোটি ভালোবাসা আমাকে আরও অনেক বেশি ভালো কাজে অনুপ্রাণিত করবে। আর এত মানুষের ভালোবাসা এটা আমার কাছে স্বপ্ন স্বপ্নই মনে হচ্ছে।’

গত মাসের ২২ জুন মেহজাবীনের অনুসারী সংখ্যা ছিল ৯৬ লাখ ৬ হাজার। তার পর থেকে দ্রুত বাড়তে থাকে তাঁর অনুসারী। এই সময় মেহজাবীনের চেয়ে বেশি অনুসারী ছিল তাহসান খান ও পূর্ণিমার। বর্তমানে তাঁদের অনুসারী সংখ্যা ৯৮ লাখের বেশি। পূর্ণিমা ফেসবুকে নিয়মিত হলেও তাহসান খান অনিয়মিত।

সেদিক থেকে দ্রুতই তাঁদের ছাড়িয়ে গেলেন মেহজাবীন। ৯৬ লাখ থেকে মাত্র ২২ দিনে ৬ লাখ অনুসারী বেড়েছে তাঁর। এর অন্যতম কারণ, ফেসবুকে বেশ নিয়মিত তিনি। মাঝেমধ্যে ফেসবুক লাইভেও চলে আসেন ভক্তদের সঙ্গে আড্ডা দিতে। অভিনেত্রীর ভেরিফায়েড পেজের তথ্য থেকে জানা যায়, ২০১১ সালের ১১ মার্চ পেজটি চালু করেন তিনি।

তিনি ২০০৯ সালে লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার থেকে বিজয়ী হয়ে মিডিয়া জগতে আসেন। শুরু করেন অভিনয়। প্রথম ইফতেখার আহমেদ ফাহমি পরিচালিত ‘তুমি থাকো সিন্ধুপারে’ নাটকে অভিনয় করেন। এ নাটকে তার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন মাহফুজ আহমেদ। এর পর থেকে টানা অভিনয় করতে থাকেন।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.