The news is by your side.

নয়টি ‘মানবিক করিডোর’ খোলার বিষয়ে একমত রাশিয়া-ইউক্রেন

0 81

বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য ইউক্রেনে মানবিক করিডোর প্রতিষ্ঠায় সম্মত হয়েছে ইউক্রেন ও রাশিয়া। ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ সামরিক অভিযান শুরুর পর দুই দেশের মধ্যে দ্বিতীয় দফার আলোচনায় এ বিষয়ে ঐকমত্য হয়েছে। উভয় দেশের কর্মকর্তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

ফেসবুক পোস্টে ইউক্রেনের উপপ্রধানমন্ত্রী ইরিনা ভেরেশচুক বলেছেন, দেশের বিভিন্ন শহরে আটকে পড়া নাগরিকদের নিরাপদে সরিয়ে নিতে নয়টি ‘মানবিক করিডোর’ খোলার বিষয়ে রাশিয়ার সঙ্গে একমত হওয়া গেছে।

তবে মারিওপোল থেকে নাগরিকদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে রাশিয়ার সঙ্গে কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছানো যায়নি, জানান ইরিনা।

তিনি বলেন, আমি আশা করছি, মারিওপোলে আটকে পড়া বাসিন্দারা চাইলে বেরদিয়ানস্ক হয়ে শহর ছাড়তে পারবেন। সেখানে তাদের জন্য মানবিক সহায়তার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এ ছাড়া ২৪টি বাস অপেক্ষা করছে তাদের বহনের জন্য।

ইউক্রেনের মারিওপোলে বেশ কিছুদিন ধরে হামলা চালাচ্ছে রুশ সেনারা। মারিওপোলে সংঘাত ভয়াবহ রূপ নেওয়ার অন্যতম কারণ হলো— এ শহর আজভ সাগরের এমন এক জায়গায় অবস্থিত যা কৌশলগতভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া এটি ক্রিমিয়া উপদ্বীপে রাশিয়ান বাহিনী এবং পূর্ব ইউক্রেনে মস্কো-সমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদী সেনাদের বিভক্ত করে রেখেছে। যদি এ শহর দখলে নেওয়া যায় তবে ক্রিমিয়া পর্যন্ত রুশ সেনাদের অবাধ পদচারণার সুযোগ তৈরি হবে।

এদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ইউক্রেনকে নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্য যেকোনোভাবে অর্জন করবে তার দেশ। বৃহস্পতিবার ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে এক ফোনালাপে এমন মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, ইউক্রেনে রাশিয়ার লক্ষ্য হলো দেশটিকে নিরস্ত্রীকরণ করা এবং জোটনিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.