The news is by your side.

নেনের সঙ্গে দাম্পত্য জীবনের কষ্টের কথা জানালেন মাধুরী

0 102

একসঙ্গে পথ চলার ২৩ বছর পার করেছেন মাধুরী দীক্ষিত ও ডক্টর শ্রীরাম নেনে। ১৯৯৯ সালে সকলকে অবাক করে দিয়ে আমেরিকার নিবাসী চিকিৎসককে বিয়ে করেন মাধুরী। কেরিয়ারের স্বর্ণ সময়ে নায়িকার এমন সিদ্ধান্ত চমকে দিয়েছিল সকলকে।

আশি-নব্বইয়ের দশকে তিনি পর্দায় এলেই ঝড় উঠত সকলের হৃদয়ে। অনেক অভিনেতার সঙ্গেও জড়িয়েছিল তার নাম। কিন্তু চিকিৎসক শ্রীরাম নেনেকে বিয়ে করে অভিনয় জগৎ ছেড়ে মাধুরী দীক্ষিত চলে গিয়েছিলেন আমেরিকায়। দীর্ঘ তেইশ বছরের দাম্পত্য জীবন তাদের। তবে সহজ ছিল না তার দাম্পত্য জীবনের শুরুর দিনগুলো। সম্প্রতি স্বামীর ইউটিউব চ্যানেলে সেই নিয়ে মুখ খুলেছেন ‘ধক ধক গার্ল’।

মাধুরী জানান, একজন চিকিৎসকের স্ত্রী হওয়া কতটা কঠিন। সন্তানদের খেয়াল রাখতে হয়, স্কুলে নিয়ে যেতে হয়, সময়ও একটা বড় ব্যাপার। হয়তো একটা গুরুত্বপূর্ণ কিছু ঘটছে, শ্রীরামকে দরকার, কিন্তু সে তখন ব্যস্ত হাসপাতালে, রোগীর দেখাশোনা করছে। কখনও হয়তো আমি অসুস্থ, কিন্তু সে হাসপাতালে রোগীর পরিচর্যায় ব্যস্ত। এমনও হয় যে, চার-পাঁচ দিন টানা হাসপাতালে কাটানোর পর তার স্বামী বাড়ি ফেরেন।

যদিও মাধুরী তাঁর চিকিৎসক স্বামীর জন্য গর্বিত। যেভাবে শ্রীরাম রোগীদের খেয়াল রাখেন, তাদের জন্য লড়াই করেন, তা মুগ্ধ করে মাধুরীকে। তিনি স্বামীকে বলেন, আমি জানি, তুমি ভাল মনের মানুষ। বিয়ের ক্ষেত্রে জীবনসঙ্গীকে জানাটা খুব জরুরি।

অভিনেত্রী বলেন, বিয়ের পর আমি নিজের জীবনটা প্রাণ খুলে বাঁচার সুযোগ পেয়েছি। আমরা বাইরে যেতাম, অনেক জায়গায় ট্রাভেল করতাম এবং প্রচুর অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস করেছি যেটা আমি তার আগে কখনো করিনি। উনি আমার জীবনকে আরও বেশি সমৃদ্ধ করেছেন, আমাকে আরও ভালো মানুষ হিসাবে গড়ে তুলেছেন।

মাধুরী ও শ্রীরাম নেনের বড় ছেলে অরিনের জন্ম হয় ২০০৩ সালে। দু-বছর পর রায়ানের জন্ম দেন মাধুরী। দীর্ঘদিন যুক্তরাষ্ট্রে থাকার পর, আপতত মুম্বাইয়ে নিজেদের ভালোবাসার ঠিকানা গড়েছেন মাধুরী ও নেনে।

 

80%
Awesome
  • Design

Leave A Reply

Your email address will not be published.