The news is by your side.

নুসরাত ফারিয়া: ‘জিরো ফিগার আইকন’ 

0 71

 

 

তিনি নিয়মিত শরীরচর্চা করে ফিট থাকছেন। তবে তার সৌন্দর্য রহস্য শুধু শরীরচর্চার ওপর নির্ভর করে না।

নুসরাত ফারিয়া অবশ্য এ দেশে ‘জিরো ফিগার আইকন’।  নিয়ম করে শরীরচর্চা আর ডায়েট দুটোই মেনে চলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। অভিনয়ের পাশাপাশি শরীরচর্চাকেও সমানভাবে গুরুত্ব দেন এই অভিনেত্রী। ফিট থাকার বিষয়ে বিন্দুমাত্র ছাড় দিতে রাজি নন তিনি। তাইতো শরীরের প্রয়োজন অনুযায়ী খাদ্য গ্রহণ এবং অতিরিক্ত ক্যালোরি পোড়াতে কঠোর শরীরচর্চায়ও মনোযোগী নুসরাত ফারিয়া।

নুসরাত ফারিয়ার মতে, খাবার এবং পানীয় দুটো বিষয়েই তিনি সমান সতর্ক। প্রচুর পরিমাণে পানি পান করেন তিনি। এতে শরীর যেমন সুস্থ থাকে; ঠিক তেমনই ত্বক এবং চুলের স্বাস্থ্যও ভেতর থেকে ঝলমলে হয়। আর এ জন্য ভাতই খান না অভিনেত্রী। হয়তো আক্ষেপ বা অনেকটাই মজার ছলে নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, ‘ভাতের জন্য পরিশ্রম করি কিন্তু ভাত খেতে পারি না। ’সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন হ্যাশট্যাগ ‘অ্যাকট্রেস লাইফ’।

ভাত খান না, তাহলে কী খান? নিজেই জানালেন সে কথা। আসুন নুসরাত ফারিয়ার ভাত ছাড়া তিন বেলার খাবার দেখে নেওয়া যাক-

সকালে প্রথমেই খালি পেটে নুসরাত ফারিয়া পান করেন এক মগ জিরা ও দারুচিনির চা। তার কিছুক্ষণ পর ডিমের ওমলেট, সঙ্গে কিছু সবজি ও স্পাইসি সস মিশিয়ে খান তিনি। এরপর ২ টুকরো ডার্ক চকোলেট খেয়ে থাকেন ফারিয়া। ডার্ক চকোলেটে থাকা পুষ্টিকর উপাদানগুলো শরীর, এমনকি ত্বক সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

নুসরাত ফারিয়া দুপুরের খাবারে পাতে রাখেন ১ পিস চিকেন ফ্রাই, একটি ও আরেকটির অর্ধেক শসার স্লাইস, ২০ গ্রাম সবজি। সেই সঙ্গে দুপুরে তিনি খাবারের পর এক গ্লাস ডাবের পানি অবশ্যই পান করেন।

সন্ধ্যায় খিদে লাগলে ফারিয়া টক দইয়ের সঙ্গে আম, কলা ও ডালিম মিক্স করে খেয়ে থাকেন। কখনো সবগুলো উপাদান একসঙ্গে ব্লিন্ড করে স্মুদি তৈরি করে খান। এসব ফলে থাকা বিভিন্ন পুষ্টিগুণ স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী।

রাতের খাবারে নুসরাত ফারিয়া স্যুপ খেয়ে থাকেন।   স্যুপের সঙ্গে ব্রাউন ব্রেড ভাজাও খেয়ে থাকে নুসরাত ফারিয়া।

সব শেষে রাতে ঘুমানোর আগে বিশেষ এক চা পান করেন তিনি। এটি তৈরি করেন জিরা ও দারুচিনি দিয়ে। জিরা ও দারুচিনিতে থাকা বিভিন্ন উপাদান শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার দাওয়াই। ডায়াবেটিস থেকে শুরু করে জয়েন্টে ব্যথা, এমনকি ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে এই চা। সারা দিনে অবশ্যই তিন লিটার পানি পান করেন নুসরাত ফারিয়া।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.