The news is by your side.

ঢাকা-৫ আসন: আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে পারেন শাহে আলম মুরাদ

0 1,799

 

 

ঢাকা-৫ (ডেমরা, যাত্রাবাড়ী ও আংশিক কদমতলী) আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে আসনটি শুন্য ঘোষণা করেছেন সংসদ সচিবালয়। ফলে এই আসনটিতে উপনির্বাচনকে সামনে রেখে ফেসবুকের মাধ্যমে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন অনেক মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীরা।

মহামারি করোনার কারণে প্রার্থীর প্রকাশ্যে মাঠে না থাকলেও প্রার্থীদের নিয়ে তাদের সমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জোরে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। করোনার প্রাদুর্ভাব কমলেই মাঠ সরগরম হতে দেখা যাবে প্রার্থীদের পদচারণায় এমনটাই গুঞ্জন চলছে নির্বাচনী এলাকাজুড়ে। প্রয়াত সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লার পর এবার আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে কে আসছেন এটাই দেখার বিষয়।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বেশিরভাগ নেতাকর্মীরাই এই আসনে যোগ্যপ্রার্থী দেখতে চান। নগরের সদ্য বিদায়ী কমিটির অধিকাংশ নেতা, থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মী; বিশেষ করে ডেমরা ,যাত্রাবাড়ী ও কদমতলীর তৃণমূল কর্মী ও সাধারণ মানুষ একজন কর্মীবান্ধব নেতাকে এই আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে দেখতে চান। সে ক্ষেত্রে তারা ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সদ্যবিদায়ী সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পছন্দের তালিকায় এগিয়ে রাখছেন। ক্লিন ইমেজের পাশাপাশি দীর্ঘদিন কর্মীদের পাশে থেকে দুঃসময়ে তাদের পাশে দাঁড়ানোয় শাহে আলম মুরাদ কর্মীদের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছে বলে মনে করছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

তবে শাহে আলম মুরাদ নিজে এখনো পর্যন্ত এ বিষয়ে কোন ধরনের আগ্রহ কিংবা প্রচারে অংশ নেননি।

আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন, (এশিয়ান গ্রুপ) এশিয়ান টেলিভিশনের চেয়ারম্যান ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক হারুন অর রশিদ (সিআইপি), আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও শহীদ শেখ কামালের স্ত্রী শহীদ সুলতানা কামালের ভাতিজি মেহরীন মোস্তফা দিশি, যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কাজী মনিরুর ইসলাম মনু আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা যাত্রাবাড়ী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ মুন্না, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর আতিকুর রহমান আতিক, সদ্য প্রয়াত সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লার বড় ছেলে ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লা স্বজল, ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম খাঁন মাসুদ, ও মহাজোট সরকারের শরীক দল জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ।

এশিয়ান গ্রুপ ও এশিয়ান টেলিভিশনের চেয়ারম্যান ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক হারুন অর রশিদ (সিআইপি) গত সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।

মহাজোট থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় যুব সংহতির সাবেক সভাপতি আব্দুস সবুর আসুদ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের পুত্রবধূ সুলতানা কামালের ভাতিজি মেহরীন মোস্তফা দিশি এই আসন থেকে একমাত্র নারী প্রার্থী।

অন্যদিকে সদ্য প্রয়াত সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লার ছেলে ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লা স্বজল নির্বাচনে প্রর্থী হবেন এবং তাকেই মনোনয়ন দেবে দলীয় ভাবে এমন প্রত্যাশাও রয়েছে ঢাকা-৫ এর জনগণের মাঝে।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.