The news is by your side.

চীন-তাজিকিস্তান সীমান্তে শক্তিশালী ভূমিকম্প

0 95

তাজিকিস্তানের চীন সীমান্তবর্তী অঞ্চলে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। তবে রিখটার স্কেলে এ ভূমিকম্পের মাত্রা এবং তা আঘাত হানার সময় নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিয়েছে ইউএসজিএস ও ইএমএসসির মতো সংস্থাগুলো।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার (ইউএসজিএস) তথ্যের বরাতে সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড জানায়, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা ৩৭ মিনিটে তাজিকিস্তানের পূর্বাঞ্চলে ৬.৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূপৃষ্ঠ থেকে এর গভীরতা ছিল ২০.৫ কিলোমিটার।

এদিকে চীনের ভূমিকম্প নেটওয়ার্ক কেন্দ্রের বরাত দিয়ে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন সিসিটিভি জানিয়েছে, চীনের জিনজিয়াং অঞ্চলের সীমান্তের কাছে এবং তাজিকিস্তানে প্রায় ৭.৩ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিসিটিভি এ ভূমিকম্পের কেন্দ্র ছিল চীনের নিকটতম সীমান্ত থেকে প্রায় ৮২ কিলোমিটার দূরে। জিনজিয়াংয়ের পশ্চিমাঞ্চলের কাশগড় এবং আর্টাক্সে তীব্র কম্পন অনুভূত হয়েছে। উপকেন্দ্রের পাঁচ কিলোমিটারের মধ্যে এর গড় উচ্চতা ছিল প্রায় ৪ হাজার ৬৫৫ মিটার।

অন্যদিকে ইউরোপীয়-ভূমধ্যসাগরীয় সিসমোলজিক্যাল সেন্টার (ইএমএসসি) জানায়, এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭.১। যদিও পরে সেই প্রতিবেদন সংশোধন করে এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৩।

ইউএসজিএসের অনুমান, এ ভূমিকম্প থেকে ভূমিধসের শঙ্কা থাকলেও, জনসংখ্যা অধ্যুষিত এলাকা তার সংস্পর্শে আসবে না। সংস্থাটি বলছে, ভূমিকম্পটির কেন্দ্রস্থল আফগানিস্তান ও চীনের সীমান্তবর্তী আধা-স্বায়ত্তশাসিত পূর্বাঞ্চলীয় গোর্নো-বাদাখশানে হতে পারে।

ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল ছিল নিকটতম চীনের সীমান্ত থেকে প্রায় ৮২ কিলোমিটার দূরে। দেশটির জিনজিয়াং অঞ্চলের পশ্চিম অংশের কাশগর ও আর্টাক্সে তীব্র কম্পন অনুভূত হয়।

প্রাথমিকভাবে এতে ক্ষয়ক্ষতির কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। কারণ কম জনবহুল ওই অঞ্চলটি সুউচ্চ পামির মালভূমি দ্বারা বেষ্টিত।

 

80%
Awesome
  • Design

Leave A Reply

Your email address will not be published.