The news is by your side.

কাশ্মীরে বন্দি রাজনীতিকদের ছেড়ে দিতে ভারতকে যুক্তরাষ্ট্রের চাপ

0 208

 

নির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়াই উপত্যকায় যে সমস্ত রাজনীতিককে বন্দি করা হয়েছে, তাঁদের ছেড়ে দিতে বলে ভারতের ওপর চাপ প্রয়োগ করল যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকারের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া সংক্রান্ত প্রিন্সিপাল ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারিঅ্যালিস ওয়েলস এই মন্তব্য করেছেন।

সম্প্রতি ‘রাইসিনা ডায়লগ’-এ যোগ দিতে তিনি দিল্লি এসেছিলেন তিনি। ওয়াশিংটনে ফিরে গিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ভারতে গিয়ে বুঝতে পারলাম, নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সেখানে কী ঘটছে। বিষয়টি নিয়ে খুব জোরদার ‘গণতান্ত্রিক চর্চা’ চলছে ভারতে।

জম্মু-কাশ্মীর সম্পর্কে তিনি বলেন, কোনো অভিযোগ ছাড়াই সেখানকার যে নেতাদের আটকে রাখা হয়েছে, তাদের মুক্তি দেওয়ার জন্য আমরা ভারত সরকারকে অনুরোধ করেছি। নাগরিকত্ব আইন সম্পর্কে পরে তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে অনেকে পথে নেমেছেন। বিরোধীরা সরব হয়েছেন। মিডিয়ায়, কোর্টে, সব জায়গায় ওই আইন নিয়ে চর্চা হচ্ছে। আমরা বরাবরই বলে আসছি আইনত সকলেরই সমান সুরক্ষা পাওয়া উচিত।

জম্মু-কাশ্মীর সম্পর্কে অ্যালিস বলেন, ভারত সরকার সেখানে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য কয়েকটি পদক্ষেপ নিয়েছে। ইন্টারনেট পরিষেবা আংশিক চালু হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা সরকারকে বরাবর বলে এসেছি, যে রাজনৈতিক নেতাদের নামে নির্দিষ্ট অভিযোগ নেই তাদের দ্রুত মুক্তি দিন।

গত বছর ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ করে কেন্দ্রীয় সরকার। তার পর ছ’মাস কাটতে চললেও এখনও গোটা দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন উপত্যকা। তা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়ে ভারত। গত বছর ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি প্রতিনিধি দলকে উপত্যকায় প্রবেশের অনুমতি দেয় দিল্লি। তারপর চলতি মাসের শুরুতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ভিয়েতনাম, মালদ্বীপ, মরক্কো, ফিজি, নরওয়ে, ফিলিপিন্স, আর্জেন্টিনাসহ ১৫টি দেশের কূটনৈতিক প্রতিনিধিদলকে উপত্যকার পরিস্থিতি ঘুরিয়ে দেখানো হয়। সেই দলে শামিল ছিলেন অ্যালিসও।

Leave A Reply

Your email address will not be published.