The news is by your side.

ইরানের হামলায় মার্কিন সামরিক ঘাঁটির রাডার ব্যবস্থা ধ্বংস

0 323

 

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ইরাকের আল-আনবার প্রদেশে অবস্থিত মার্কিন বিমান ঘাঁটি ‘আইন আল-আসাদে’র রাডার ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

ইরাকি সূত্রের বরাতে ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ইরনা এ দাবি করেছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র নিজের কাছে বিশ্বের সর্বাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থাকার দাবি করলেও গতকালের ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ঠেকাতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। ওই হামলায় মার্কিন ঘাঁটিটিতে অবস্থিত ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাও পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে।

রয়টার্সের খবরে জানা গেছে, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ইরাকের আইন আল-আসাদ বিমান ঘাঁটির সাতটি ভবন ধ্বংস ও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এসব ভবনে মার্কিন সামরিক বাহিনীর সদস্যরা বসবাস করেন।

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি) গতকাল বুধবার ভোররাতে ইরাকে অবস্থিত মার্কিন সামরিক ঘাঁটি ‘আইন আল-আসাদ’র ওপর অসংখ্য ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। এ হামলায় অন্ত ৮০ জন মার্কিন সন্ত্রাসী সেনা নিহত ও দুই শতাধিক সেনা আহত হয় বলে আইআরসজিসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

এদিকে ইসরাইলের একটি সূত্র জানিয়েছে, বুধবার ইরাক থেকে ২শ’ ২৪ জন আহত মার্কিন সেনাকে চিকিৎসার উদ্দেশ্যে তেল আবিবে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এসব সেনা ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আহত হন।

ক্যালিফোর্নিয়ায় মন্টারিতে মিডলবুরি ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের জেফরি লুইস বলেন, ঘাঁটির মার্কিন অংশকে হামলার লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে তারা। তারা এটাকে আঘাত করতে চেয়েছে এবং আঘাত করেছে।

গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরে মার্কিন বিমান হামলায় কুদস প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানিসহ অন্তত ১০ জন নিহত হন। এই ঘটনার পর ইরান ৮ জানুয়ারি পাল্টা হামলা চালিয়ে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে প্রতিশোধের প্রথম পদক্ষেপ এটি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.