The news is by your side.

ইউক্রেনের খারকিভে রুশ ড্রোন হামলায় ৩ শিশুসহ নিহত ৭

0 85

 

ইউক্রেনের খারকিভ শহরে ড্রোন হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। হামলায় ছোট তিন শিশুসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। হামলার কারণে শহরটিতে আগুন ধরে যায়, অবকাঠামো ও আবাসিক ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

খারকিভের আঞ্চলিক গভর্নর ওলেহ সিনহুবভ বলেছেন, রুশ বাহিনী শুক্রবার গভীর রাতে শহরটিতে হামলা চালিয়ে বেসামরিক অবকাঠামোতে আঘাত হানে। এতে বেশ কয়েকটি বড় অগ্নিকাণ্ড ঘটে। হামলার কারণে খারকিভের পূর্বে অন্তত ১৫টি আবাসিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তিনি টেলিগ্রামে জানিয়েছেন, ‘হামলার ফলে সাতজন মারা গেছে। নিহতদের মধ্যে তিন শিশু রয়েছে। তারা যথাক্রমে সাত, চার ও প্রায় ছয় মাস বয়সী। আহত হয়েছেন অন্তত আরও তিনজন।’

ইউক্রেনীয় বিমান বাহিনী বলেছে, রাশিয়ার লঞ্চ করা ৩১টি ড্রোনের মধ্যে ২৩টি গুলি করে ভূপাতিত করেছে বিমান প্রতিরক্ষা ও ড্রোন শিকারীদের মোবাইল গ্রুপ। ড্রোনগুলো দেশের উত্তর-পূর্বে খারকিভ অঞ্চল ও দক্ষিণে ওডেসা অঞ্চলকে লক্ষ্য করে লঞ্চ করা হয়েছে।

খারকিভে স্থানীয় প্রসিকিউটর অফিসের প্রধান ওলেক্সান্ডার ফিলচাকভ টেলিগ্রামে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে বলেছেন, তিনটি ড্রোন শহরের নেমিশ্লিয়ানস্কি জেলার পেট্রোল স্টেশনে আঘাত করেছে। এখানে প্রচুর পরিমাণে জ্বালানি ছিল। একারণেই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

অগ্নিনির্বাপক ও উদ্ধারকারীরা হামলার পরিণতি মোকাবিলা করতে, আগুন নেভাতে ও ধ্বংসাবশেষ পরিষ্কার করতে রাতভর কাজ করেছেন বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ওডেসার কৃষ্ণ সাগর বন্দরে ড্রোন হামলায় একজন আহত হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন আঞ্চলিক গভর্নর।

রয়টার্স স্বাধীনভাবে হামলার বিস্তারিত নিশ্চিত করতে সক্ষম হয়নি। রাশিয়া তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্যের অনুরোধে সাড়া দেয়নি। তবে বলেছে, তারা কখনো ইচ্ছাকৃতভাবে বেসামরিক স্থপানাকে লক্ষ্যবস্তু করে না।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে রাশিয়ান আক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে খারকিভে নিয়মিত হামলা চালানো হচ্ছে। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে অঞ্চলটিতে ঘন ঘন হামলা চালিয়েছে রাশিয়া।

Leave A Reply

Your email address will not be published.