The news is by your side.

আওয়ামী লীগ: প্রয়োজন তৃণমূলে যোগ্য নেতৃত্ব

বিশেষ সম্পাদকীয়

0 54

 

 

সুজন হালদার

বলবার অবকাশ নেই, দেশে আওয়ামীলীগই একমাত্র রাজনৈতিক সংগঠন – যে সংগঠনে বাংলার গণমানুষের অংশীদারিত্ব রয়েছে। ১৯৪৯ থেকে ২০২২,  দীর্ঘ পথচলায় সাধারণ মানুষ এবং কর্মীরাই এই সংগঠনটিকে টিকিয়ে রেখেছে, উজ্জীবিত রেখেছে। দুঃখজনক বাস্তবতা; রাষ্ট্রক্ষমতার ১৩ বছরেরও বেশি সময়ে সংগঠনের প্রাণশক্তি তৃণমূল নেতা কর্মী সমর্থকদের মতামত খুব কমই গুরুত্ব পেয়েছে দলীয় নীতি নির্ধারণের ক্ষেত্রে।

মহানগর, জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড কিংবা ইউনিটে কার্যকরী কমিটি গঠনে কর্মীদের কোন মতামত নেয়া হয়নি। সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃত্ব গড়ে উঠছে হাতেগোনা কয়েকজন নেতার ইচ্ছায়। প্রতিটি সাংগঠনিক জেলায় একজন, দুজন শীর্ষ নেতাই ঠিক করছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের কে কোন পদে আসীন হবেন। মহানগর, জেলা ও উপজেলায় কাউন্সিল হলেও (অনিয়মিত) কমিটি গঠনে কর্মীদের কোন সম্পৃক্ততা কিংবা অংশগ্রহণ চোখে পড়ছে না।

আওয়ামী লীগের মতো সংগঠনে যা অপ্রত্যাশিত এবং দুঃখজনক। সঙ্গত কারণেই তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে রয়েছে আশাভঙ্গের বেদনা।ব্যক্তিগতভাবে অসংখ্য কর্মীর সঙ্গে আমার কথা হয়। দলের কাছে তাদের চাওয়া পাওয়ার খুব একটা কিছু নেই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে তারা আওয়ামী লীগ করেন, নির্বাচন এলে নৌকায় ভোট দেন। কিন্তু যারা জনপ্রতিনিধি কিংবা দলীয় পদ পদবী নিয়ে রয়েছেন তারা কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন খুব কমই। যে কারণে দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকলেও দলের সদস্য কিংবা কর্মীর সংখ্যা বাড়েনি। বাড়ানোর কোনো কার্যকর উদ্যোগও নেয়া হয়নি।

আবার বলতে হচ্ছে, আওয়ামী লীগ কর্মীদের সংগঠন। কর্মীদের মূল্যায়ন না হলে সংগঠন শক্তি হারাবে, যা ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনের জন্য সুখকর হবে না। আওয়ামী লীগ সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে জাতীয় কাউন্সিল সহ সারাদেশে তৃণমূল কাউন্সিলের প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু বাস্তব চিত্র নেত্রীর নির্দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।

কাউন্সিল হবে, কমিটি হবে ঠিকই। কিন্তু সবকিছু দেখে যা মনে হচ্ছে, কর্মীরা যথারীতি উপেক্ষিতই থেকে যাবেন।উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী ও অন্যতম প্রাচীন এ সংগঠনটিকে আরো শক্তিশালী করতে প্রয়োজন কর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে আগামী দিনে নেতৃত্ব নির্ধারণ করা। কেবলমাত্র সেক্ষেত্রেই আওয়ামী লীগ আরো বেশি জনসম্পৃক্ত হওয়ার সুযোগ পাবে। একইসঙ্গে সংগঠন হিসেবে আরো বেশি শক্তিশালী হবে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.