The news is by your side.

মৃত্যুদণ্ড হতে পারে সৌদির দুই যুবরাজের

0 68

 

সৌদি রাজপরিবারের জ্যেষ্ঠ দুই সদস্যকে শুক্রবার ভোরেই আটক করেন কালো পোশাক পরা নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। অভ্যুত্থান চেষ্টার অভিযোগে বাদশাহ সালমানের ছোট ভাই প্রিন্স আহমেদ বিন আবদুল আজিজ ও ভাতিজা মোহাম্মদ বিন নায়েফকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের খবরে দাবি করা হয়, রাজকীয় আদালত তাদের বিরুদ্ধে বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে সিংহাসনচ্যুত করতে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনেছে। এতে তাদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড কিংবা মৃত্যুদণ্ড হতে পারে ।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়, ৩৪ বছর বয়সি যুবরাজ সালমানের নির্দেশে শুক্রবার তার চাচা ও ছোট ভাই প্রিন্স মোহাম্মাদ বিন নায়েফকে আটক করা হয়। এছাড়া রাজ পরিবারের আরো দুই সদস্যকেও ওইদিন আটক করা হয়। এদের মধ্যে একজন রাজা সালমানের ভাতিজা এবং একজন সাবেক যুবরাজ রয়েছেন।

ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল ও নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে সৌদি রাজকীয় আদালতের রক্ষীরা এই দু’জনের বাড়িতে যায় এবং তাদের জিম্মায় নেয়।

মোহাম্মদ বিন সালমান সৌদি আরবের যুবরাজ হওয়ার আগ পর্যন্ত মোহাম্মদ বিন নায়েফই ছিলেন যুবরাজ। ২০১৭ সালে তাকে সরিয়ে নিজের ছেলেকে যুবরাজ বানান বাদশাহ সালমান।

এর আগেও ২০১৭ সালে ডজনখানেক রাজকীয় ব্যক্তিত্ব, মন্ত্রী ও ব্যবসায়ীকে আটক করে রিয়াদের রিজ-কার্লটন হোটেলে রাখা হয়েছিল। সে সময় মোহাম্মদ বিন নায়েফকেও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নির্দেশে গৃহবন্দি করা হয়েছিল। তার আগে মোহাম্মদ বিন নায়েফকে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.