The news is by your side.

অনলাইনে ক্লাস করলে মার্কিন ভিসা বাতিল!

0 65

 

 

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে এক কোটি ১৭ লাখ ৪৪ হাজার তিনশ ৯৭ জন এবং মারা গেছে পাঁচ লাখ ৪০ হাজার সাতশ৬৪ জন। তার মধ্যে কেবল যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ৩০ লাখ ৪০ হাজার আটশ ৩৩ জন এবং মারা গেছে এক লাখ ৩২ হাজার নয়শ ৭৯ জন। করোনার বিশ্বে ক্ষতিগ্রস্থ দেশের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র রয়েছে এক নম্বরে।

করোনা সঙ্কটে যুক্তরাষ্ট্রের বহু বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস হচ্ছে অনলাইনে।সোমবার ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়ে দিয়েছে, যে শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস করছেন, তাদের যুক্তরাষ্ট্রে থাকার ভিসা প্রত্যাহার করা হবে। তারা নিজ দেশে ফিরে গিয়ে অনলাইনে ক্লাস করবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট ডিপার্টমেন্টের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যে শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস করছেন, তাদের যুক্তরাষ্ট্র ছেড়ে চলে যেতে হবে। নয়তো এমন কোনো কোর্সে ভর্তি হতে হবে যেখানে শারীরিকভাবে ক্লাসে হাজির হওয়া জরুরি।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঠিক করেছে, যে শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস করা যায় এমন কোর্সের জন্য আবেদন করেছেন, তাদের ভিসা প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। আগামী দিনে ওই ধরনের ছাত্রদের আর ভিসা দেওয়া হবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি স্কুল-কলেজে অনলাইনে পড়ানো হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু সেই সঙ্গে কয়েকটি ক্লাসে ছাত্রদের ক্লাসে আসতেও বলা হয়েছে। অবশ্য হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় ঠিক করেছে, প্রতিটি কোর্স করানো হবে অনলাইনে।

ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে যুক্তরাষ্ট্রে ১০ লাখ বিদেশি শিক্ষার্থী গেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে যত শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষার জন্য ভর্তি হন, তাদের ৫.৫ শতাংশ বিদেশি। ২০১৮ সালে বিদেশি ছাত্রদের মাধ্যমে মার্কিন আয় ৪৪৭০ কোটি ডলার।

যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি ছাত্র যায় চীন থেকে। তার পরেই আছে ভারত, দক্ষিণ কোরিয়া, সৌদি আরব এবং কানাডার শিক্ষার্থীরা। এর আগে জানানো হয়েছিল, বিদেশি কর্মীদের ভিসা দেওয়ার ব্যাপারে কড়াকড়ি করছে ট্রাম্প প্রশাসন। চলতি বছরে এইচ ওয়ান বি ভিসা দেওয়া বন্ধ হয়েছে। আগামী দিনে শুধু দক্ষ এবং খুব বেশি বেতনের কর্মীদেরই যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ার্ক ভিসা দেওয়া হবে। যুক্তরাষ্ট্রে কম বেতনের চাকরিতে যাতে বিদেশিরা কাজ করতে না পারেন, সেদিকে সতর্ক নজর রাখবে প্রশাসন।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্দেশ দেন, চলতি বছরের জন্য এইচ ওয়ান বি ভিসা দেওয়া বন্ধ রাখতে হবে। এর পরেই হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়, আগামী দিনে ওই ভিসা দেওয়ার পদ্ধতিতে কিছু পরিবর্তন আনা হবে। কেবল অতি দক্ষ কর্মীরাই যাতে সে দেশে কাজ করার অধিকার পান, বিদেশিদের জন্য কোনো মার্কিন নাগরিকের চাকরি না যায়, সেদিকে লক্ষ রাখা হবে। ভবিষ্যতে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো নিয়োগকর্তা সস্তায় বিদেশি কর্মী রাখতে পারবেন না।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.