The news is by your side.

কিয়েভে বিদ্যুৎ বিপর্যয়: সরিয়ে নেওয়া হতে পারে বাসিন্দাদের

0 31

রাশিয়ার হামলায় কিয়েভে বিদ্যুৎ সরবরাহের বড় ধরনের বিপর্যয় হয়েছে। বিদ্যুৎ সরবরাহ পুরোপুরি অচল হয়ে গেলে বাসিন্দাদের শহর ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে জানিয়েছেন শহরের মেয়র। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে ইউক্রেনের জ্বালানি ও গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোতে রুশ বিমান হামলার কারণে মাঝেমধ্যেই লাখো ইউক্রেনীয়কে বিদ্যুৎ ও পানিবিহীন অবস্থায় কাটাতে হচ্ছে। ইউক্রেনের বিভিন্ন বিদ্যুৎকেন্দ্র ও সরবরাহ লাইনে রাশিয়ার আক্রমণের পর দেশটির জ্বালানিব্যবস্থার প্রায় ৪০ শতাংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিদ্যুৎ সরবরাহ পুরো বন্ধ হয়ে গেলে পানি সরবরাহ এবং পয়ঃনিষ্কাশন কাজও বন্ধ হয়ে যাবে।

ইউক্রেনীয় টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া বক্তব্যে কিয়েভের মেয়র ক্লিৎসকো বলেন, বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহব্যবস্থা সচল রাখতে কর্তৃপক্ষ সাধ্যমতো সব ব্যবস্থা নিচ্ছে। তবে ভিন্ন ধরনের পরিস্থিতির জন্যও প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে চান তিনি।

৫১ বছর বয়সী এ মেয়র মনে করেন, কিয়েভের বাসিন্দাদের উচিত সংকটের পরিস্থিতিতে যেন তাঁরা শহরটির কাছের এলাকায় বসবাসকারী বন্ধু-স্বজনদের (যাদের পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহব্যবস্থা সচল আছে) সঙ্গে থাকতে পারার মতো ব্যবস্থা করে রাখেন।

ক্লিৎসকো বলেন, কর্তৃপক্ষ জ্বালানি, খাদ্য ও পানি মজুত করছে এবং তিনি কিয়েভের বাসিন্দাদেরও তা করার পরামর্শ দিয়েছেন।

শীতকালে কিয়েভের গড় তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে চলে যায় এবং রাতে তা আরও অনেক কমে যায়। মেয়র ক্লিচকো জানান, বিদ্যুৎ ও পানির সরবরাহ অব্যাহত রাখার জন্য কর্তৃপক্ষ সবকিছু করছে। তবে তিনি নিশ্চিত করছেন যে ভিন্ন পরিস্থিতির জন্যও প্রস্তুতি রয়েছে।

কিয়েভের ত্রিশ লক্ষ বাসিন্দাদের শহরের আশেপাশে বসবাসকারী বন্ধু বা আত্মীয়দের সঙ্গে থাকার আয়োজন করা উচিত যাদের এখনও পানি ও বিদ্যুৎ রয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.