The news is by your side.

১১৭ উপজেলায় ভোট চলছে

0 3

সারাদেশের ২৫ জেলার মোট ১১৭টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। রবিবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়, চলবে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত। প্রথমবারের মতো চার উপজেলায় ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে।

এ ছাড়া আদালতের আদেশে কক্সবাজারের কুতুবদিয়া ও চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলার ভোট স্থগিত রাখা হয়েছে। পাশাপাশি কমিশনের সিদ্ধান্তে নরসিংদী সদর ও কক্সবাজার সদর উপজেলার ভোট চতুর্থ ধাপে স্থানান্তর করা হয়েছে। এই ধাপে মোট ৩৩ জন চেয়ারম্যান, ৯ জন ভাইস-চেয়ারম্যান ও ১৩ জন মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যানসহ মোট ৫৫ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছে।

১১৭টি উপজেলায় ১ হাজার ৩২৩ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩৪০ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫৮৪ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৯৯ জন। এসব উপজেলায় মোট ভোটার ১ কোটি ১৮ লাখ ৮৭ হাজার ৭৫১ জন। কেন্দ্র সংখ্যা ৯ হাজার ২৯৮টি। ভোটকক্ষ ৫৮ হাজার ৫২৪টি।

উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে নির্বাচনের আগের দুই দিন, নির্বাচনের দিন এবং নির্বাচনের পরের দুই দিনসহ মোট পাঁচদিন নির্বাচনী এলাকায় অতিরিক্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন থাকছে। নির্বাচনের দিন প্রতিটি সাধারণ কেন্দ্রে ১৪ জন এবং ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৬ জন করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

চার উপজেলায় ইভিএম : প্রথমবার তৃতীয় ধাপের চার উপজেলায় ইভিএম ব্যবহার করা হচ্ছে। উপজেলা চারটি হলো-মেহেরপুর সদর, মানিকগঞ্জ সদর, গোপালগঞ্জ সদর এবং রংপুর সদর। এসব উপজেলার কেন্দ্রে ট্যাব ব্যবহার করে সফটওয়্যারের মাধ্যমে ভোটকেন্দ্রের সার্বিক নজরদারি রাখা হবে। প্রতি কেন্দ্রে ইভিএম পরিচালনায় কারিগরি সহায়তা টিমের অংশ হিসেবে দু’জন করে সশস্ত্র বাহিনীর নিরস্ত্র সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। তাদের সঙ্গে প্রতি টিমে একজন করে ইসি নিয়োজিত ব্যক্তি কাজ করবেন।

যে সব উপজেলায় আজ ভোট : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট, গোমস্তাপুর, নাচোল, শিবগঞ্জ; রংপুর জেলার সদর ও মিঠাপুকুর; চুয়াডাঙ্গা জেলার সদর, আলমডাঙ্গা, জীবননগর, দামুড়হুদা; মাগুরা জেলার সদর, শালিখা, শ্রীপুর ও মহম্মদপুর; নড়াইলের সদর, কালিয়া ও লোহাগড়া; সাতক্ষীরা জেলার সদর, শ্যামনগর, কালীগঞ্জ, আশাশুনি, দেবহাটা, তালা ও কলারোয়া; কুষ্টিয়া জেলার সদর, ভেড়ামারা, খোকশা, কুমারখালী, মিরপুর, দৌলতপুর; মেহেরপুর জেলার সদর, গাংনী ও মুজিবনগর এবং ঝিনাইদহ জেলার সদর, কালীগঞ্জ, শৈলকুপা ও হরিণাকুণ্ডু।

বরিশাল জেলার সদর, বাকেরগঞ্জ, বাবুগঞ্জ, বানারীপাড়া, উজিরপুর, মুলাদি ও হিজলা; ঝালকাঠির সদর, নলছিটি, রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া; ভোলার বোরহানউদ্দিন; শেরপুরের নালিতাবাড়ী, শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতি; মাদারীপুরের কালকিনি ও রাজৈর; শরীয়তপুরের সদর, জাজিরা, নড়িয়া, ডামুড্যা ও গোসাইরহাট; গোপালগঞ্জ জেলার সদর, টুঙ্গিপাড়া, কোটালীপাড়া, কাশিয়ানী ও মুকসুদপুর; রাজবাড়ী জেলার সদর, গোয়ালন্দ, পাংশা ও বালিয়াকান্দি; মানিকগঞ্জ জেলার সদর, দৌলতপুর, ঘিওর, শিবালয়, সিংগাইর, হরিরামপুর ও সাটুরিয়া; গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া, কালিয়াকৈর, শ্রীপুর ও কালীগঞ্জ; নরসিংদী জেলার শিবপুর, মনোহরদী, বেলাব ও রায়পুর; কিশোরগঞ্জ জেলার সদর, হোসেনপুর, কটিয়াদি, পাকুন্দিয়া, তাড়াইল, করিমগঞ্জ. ইটনা, মিঠামইন, অষ্টগ্রাম, নিকলী, বাজিতপুর, কুলিয়ারচর ও ভৈরব; চাঁদপুর জেলার সদর, কচুয়া, মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ, ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি; লক্ষ্মীপুর জেলার সদর, রামগঞ্জ, রায়পুর, কমলনগর ও রামগতি। চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী, পটিয়া, আনোয়ারা, চন্দনাইশ, বাঁশখালী এবং কক্সবাজার জেলার পেকুয়া, মহেশখালী, রামু, উখিয়া ও টেকনাফ।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.