The news is by your side.

সীমান্ত পার করে শ্বশুরবাড়ি গেছেন মিথিলা

0 70

 

 

দীর্ঘ বিরহ শেষে ভালোবাসা মিলিয়ে দিল ওপারের খ্যাতিমান পরিচালক সৃজিত মুখার্জী ও বাংলাদেশের অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলাকে।  ১৫ আগস্ট ছিল ভারতের স্বাধীনতা দিবস। এই দিন বাংলাদেশ থেকে সীমান্ত পার করে শ্বশুরবাড়ির দেশে গেছেন মিথিলা এবং তাঁর একমাত্র কন্যা আইরা।

মিথিলার ভারত গমনের খবর জানিয়ে ফেসবুকে সৃজিত লিখেন, ‘১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট ঘৃণার কারণে অনেকেই সীমান্ত পার করেছিলেন। ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট ভালোবাসার জন্য দুজন আবারও সীমানা পার করলেন।’

পোস্টের সঙ্গে পেট্রাপোল সীমান্ত পার করে মিথিলা ও তাঁর মেয়ে আইরাকে ভারতে নিয়ে যাওয়ার বেশ কয়েকটি ছবিও পোস্ট করেছেন সৃজিত। ১৫ আগস্ট সকালে এক দেশ থেকে আরেক দেশে যাওয়ার প্রয়োজনীয় নিয়ম-কানুন মেনে সীমান্ত পাড়ি দেন মিথিলা ও তাঁর মেয়ে। ওপারে তাঁদের জন্য গাড়ি নিয়ে অপেক্ষায় ছিলেন সৃজিত। সেই গাড়িতে করেই তাঁরা বাড়িতে পৌঁছেন।

৬ ডিসেম্বর বাবরি মসজিদ ধ্বংসের দিন হিন্দু-মুসলিম মৈত্রী বার্তা দিয়ে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন পরিচালক সৃজিত মুখার্জী ও বাংলাদেশের অভিনেত্রী, সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। বিয়ের পর সাবেক স্বামী তাহসানের কাছে মেয়েকে রেখে মিথিলা যান মধুচন্দ্রিমা যাপনে। এরপর তিনি বাংলাদেশেই ছিলেন। করোনার লকডাউনের কারণে যাতায়াত বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। মিথিলা তাঁর কন্যা আইরাকেও কলকাতার একটি নামি স্কুলে সৃজিত ভর্তি করিয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.