The news is by your side.

সব দেশে টিকা রপ্তানির অনুমতি আছে: সেরাম সিইও

0 35

 

ভারত থেকে সব দেশেই ভ্যাকসিন রপ্তানির অনুমোদন আছে বলে জানিয়েছেন সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার প্রধান নির্বাহী আদর পূনাওয়ালা।

এক সাক্ষাৎকারে টিকা রপ্তানি বিষয়ে তার বক্তব্য নিয়ে দু’দিন ধরে বিভ্রান্তি চলার পর মঙ্গলবার টুইট করে এ কথা জানান তিনি

টুইটে আদর পূনাওয়ালা লিখেছেন, জনসাধারণের মাঝে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হওয়ায় আমি দুটি বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা দিতে চাই; সকল দেশেই ভ্যাকসিন রপ্তানির অনুমোদন আছে।  আর ভারত বায়োটেক নিয়ে সাম্প্রতিক যে ভুল-বোঝাবুঝি হয়েছে, তা দূর করতে একটি যৌথ প্রকাশ্য বিবৃতি দেওয়া হবে।

ভারতের টিকার চাহিদা মেটানোর আগে অন্য দেশকে বাণিজ্যিকভাবে টিকা না দেওয়ার বিষয়ে পুনাওয়ালার কিছু বক্তব্য ঘিরে বিভ্রান্ত-অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়।

দুদিন আগে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি -অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা প্রথম কয়েক মাস বিদেশে রপ্তানি করবে না ভারতীয় প্রতিষ্ঠান সেরাম ইন্সটিটিউট। সেরাম ইন্সটিটিউটের প্রধানের বক্তব্যের বরাত দিয়ে বলা হয়, কয়েক মাসের জন্য টিকা রপ্তানির অনুমতি দেবে না ভারত সরকার। দেশটির জনগণ যাতে যথাযথভাবে টিকা পায় সে জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানানো হয়।

তার এ বক্তব্য ঘিরে উদ্বেগ তৈরি হয়। বিশেষ করে বাংলাদেশসহ যেসব দেশ সেরামের মাধ্যমে টিকা পাওয়ার চুক্তি করেছে, তারা টিকা পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় পড়ে যায়। কোভিশিল্ড নামের ওই টিকার তিন কোটি ডোজ কিনতে গত ৫ নভেম্বর সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার সঙ্গে চুক্তি করে বাংলাদেশ সরকার।

অবশ্য গতকাল ভারতের টিকা রপ্তানির নিষেধাজ্ঞার খবরের বিষয়ে সেরাম ইনস্টিটিউটের জনসংযোগ কর্মকর্তা মায়াঙ্ক সেন দিল্লিতে বিবিসিকে জানান, টিকা রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞার যে খবর প্রকাশিত হয়েছে, তা পুরোপুরি সঠিক নয়। কারণ, তাঁদের টিকা রপ্তানির ওপর কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। তবে রপ্তানি শুরুর আগেই তারা ভারত সরকারকে ১০ কোটি টিকা দেওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়েছেন। কিন্তু এ মুহূর্তে তাঁরা রপ্তানি করতে পারবেন না, যেহেতু তাঁদের রপ্তানির অনুমতি নেই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.