The news is by your side.

শিক্ষকতায় ফিরলেন ফার্স্ট লেডি জিল

0 68

 

 

শিক্ষকতা পেশায় ফিরে গেছেন দুটি মাস্টার্স ও পিএইচডির অধিকারী জিল বাইডেন। সেই হিসাবে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে তিনিই প্রথম ফার্স্ট লেডি যিনি হোয়াইট হাউজ থেকে পেশায় যোগ দিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নর্দার্ন ভার্জিনিয়া কমিউনিটি কলেজে মঙ্গলবার থেকে পুনরায় শিক্ষকতা শুরু করেছেন প্রথম পেশাজীবী মার্কিন ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন। ২০০৯ সাল থেকে এ কলেজে শিক্ষকতা করছেন তিনি। গত নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে তিনি ভোগ ও ইউএসএ টুডেকে বলেছিলেন, ‘ফার্স্ট লেডি হলেও আমি শিক্ষকতা ছাড়ব না।’ ৭০ বছর বয়সি জিল বাইডেন বলেন, ‘শিক্ষকতা কেবলমাত্র আমি যে কাজটি করি তা নয়। এটা হচ্ছে আমার পরিচয়।’ তিনি সবসময় একজন পেশাজীবী নারী হতে চেয়েছিলেন। তার স্বামী যখন ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন ওই আট বছর তিনি ভার্জিনিয়া কমিউনিটি কলেজে পড়িয়েছেন।

কয়েক মাস ধরে জিল কম্পিউটার স্ক্রিন বা পর্দার সামনে বসেই কমিউনিটি কলেজের শিক্ষার্থীদের লেখা ও ইংরেজি ভাষা শিক্ষা দিচ্ছিলেন। সম্প্রতি গুড হাউজকিপিং ম্যাগাজিনকে বলেন, ‘এমন কিছু জিনিস আছে যা আপনি অদল-বদল বা প্রতিস্থাপন করতে পারবেন না। আর আমি ক্লাসরুমে ফিরে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে পারছি না।’

বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ মাধ্যমের অধ্যাপক ট্যামি ভিজিল বলেন, এটাই ‘বড় ব্যাপার’ যে ফার্স্ট লেডি চাকরি করেন। ভিজিল এর আগের দুই ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা ও মেলানিয়া ট্রাম্পকে নিয়ে বই লিখেছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম দিকের ফার্স্ট লেডিরা হোয়াইট হাউজের বাইরে কাজ করেননি। তারা তাদের স্বামীদের সমর্থন করতেন, সন্তানদের লালনপালন করেছেন এবং অতিথি আপ্যায়নেই ভূমিকা রেখেছেন। কয়েকজন ফার্স্ট লেডি তাদের স্বামীদের জন্য অ্যাম্বাসেডর হিসাবে কাজ করে ছিলেন। এলেনর রুজভেল্ট বিশেষভাবে সক্রিয় ছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরে ভ্রমণ করতেন এবং প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্টকে প্রতিবেদন দিতেন। পোলিওর কারণে প্রেসিডেন্ট রুজভেল্টের চলাচল সীমাবদ্ধ ছিল।

ফার্স্ট লেডি লরা বুশ এলিমেন্টারি স্কুলের শিক্ষক ও লাইব্রেরিয়ান ছিলেন। সন্তান হওয়ার পর কাজ করা বন্ধ করে দেন এবং তার স্বামী নির্বাচিত হওয়ার পর কাজ করেননি। হিলারি ক্লিনটন ও মিশেল ওবামা চাকরিজীবী মা ছিলেন, তবে হোয়াইট হাউজে থাকার সময় তারা কাজ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

জিল সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে সেকেন্ড লেডি হিসাবে ৮ বছর ধরে ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামার সঙ্গে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.