The news is by your side.

ভারতে নির্ভয়ার ধর্ষকদের ২২ জানুয়ারি ফাঁসিতে ঝোলানোর নির্দেশ

0 208

 

ভারতের নয়াদিল্লিতে চলন্ত বাসে ছাত্রী ধর্ষণের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত চার আসামির দণ্ড কার্যকর হচ্ছে আগামী ২২ জানুয়ারি।

মঙ্গলবার দিল্লির আদালত এক শুনানিতে এ তারিখ নির্ধারণ করেন বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

২০১২ সালে চিকিৎসাবিদ্যার ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ, অত্যাচার ও খুনের ঘটনায় পরের বছর দোষী সাব্যস্ত করা হয় অক্ষয় সিং ঠাকুর, মুকেশ, পবন গুপ্ত এবং বিনয় শর্মা নামের এই চার যুবককে।

বিবিসি জানায়, চলন্ত বাসে ধর্ষণের পর ছাত্রীহত্যার ঘটনাটি ব্যাপক সাড়া জাগায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আইনও সংশোধন করে ভারত। নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রীর নাম হয় ‘নির্ভয়া’।

চার সাজাপ্রাপ্ত ছাড়াও গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় আরও দুই অভিযুক্ত রয়েছে। পঞ্চম অভিযুক্ত রাম সিং আগেই আত্মহত্যা করে এবং একজন নাবালক যাকে সংশোধনাগারে তাকে তিন বছর রাখার পর ছেড়ে দেওয়া হয়।

গতমাসে শেষবার রায় পর্যালোচনা বা খতিয়ে দেখার আবেদন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট, যা আবেদন করেছিল আসামি অক্ষয় সিং।

রায়ের পর আদালত থেকে বেরিয়ে সংবাদ মাধ্যমকে আশাদেবী বলেন, এই রায়ে আইন ব্যবস্থার ওপর মানুষের আস্থা ফিরবে। আমার মেয়ে সুবিচার পাবে। সুবিচার পাবে দেশের সব মেয়ে। নির্ভয়ার বাবা বদ্রীনাথ বলেন, আদালতের রায়ে খুশি আমি।

এর আগে অভিযুক্তদের ফাঁসি কার্যকর করার নির্দেশ এগিয়ে আনতে পাতিয়ালা হাউস কোর্টে আবেদন করেন নির্ভয়ার বাবা ও মা। গত ১৮ ডিসেম্বর এই আবেদনের শুনানি হয়। এদিন অতিরিক্ত দায়রা বিচারক সতীশ অরোরা ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত রায় স্থগিত করেন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লিতে চলন্ত বাসে ২৩ বছরের তরুণী নির্ভয়াকে গণধর্ষণ করেন ছয়জন। নির্ভয়া এবং তার বন্ধু অবীন্দ্র প্রতাপের ওপর নৃশংস অত্যাচার চালায় তারা।

Leave A Reply

Your email address will not be published.