The news is by your side.

বিক্ষোভে যোগ দিলেন তাবিথ ইশরাক

0 160

 

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে। রোববার হরতাল সমর্থনে নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে হাজির হয়েছে উত্তর সিটিতে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল। এর আগেই সেখানে হাজির হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন দক্ষিণে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেন।

বেলা আড়াইটার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে হরতালের সমর্থনে কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে দক্ষিণের প্রার্থী ইশরাক হোসেন অভিযোগ করেছেন, ‘সিটি করপোরেশন নির্বাচনের যে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ মনগড়া ও সাজানো। এ ফলাফলের মাধ্যমে জনগণের মতামতের প্রতিফলন ঘটেনি। আমরা এ ফলাফল প্রত্যাখ্যান করছি।’ নির্বাচনের ফলাফলে যে পরিমাণ ভোট কাস্ট দেখানো হয়েছে, তার চেয়ে অনেক কম ভোট কাস্ট হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

হরতালের সমর্থনে এই কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে ঢাকা উত্তরে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল সাংবাদিকদের বলেন, ‘ন্যূনতম সুষ্ঠু কোনো ভোট হয়নি। এ রকম নির্বাচন আমরা কখনোই প্রত্যাশা করেনি। আমরা এই ভোট চুরির নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘হরতালের দাবি সাধারণ জনগণের কাছ থেকে এসেছে। আর আমরা সাধারণ জনগণের পাশে আছি, তাদের পক্ষে আছি।’

এর আগে সকাল ৭টা থেকে নয়াপল্টনে বিক্ষোভ করেছেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা। এ সময় প্রতীকী ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পুড়িয়ে বিক্ষোভ করেন তাঁরা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতারা সকাল থেকেই কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন। রিজভীসহ কেন্দ্রীয় নেতারা চেয়ারে বসা। আর অন্য নেতাকর্মীরা তাদের সামনে ফুটপাতে বসা। ইশরাক আসেন বেলা ১১টার দিকে। তিনি এসেই বিক্ষোভরত নেতাকর্মীদের মাঝে বসে পড়েন।

অনেকে তাকে সম্মান দেখিয়ে পেছনে নেতাদের সঙ্গে চেয়ারে বসতে বললেও তিনি বসেননি। কর্মীদের পাশে ফুটপাতেই বসে পড়েন। এ সময় নিজেই স্লোগানের নেতৃত্ব দেন ইশরাক। তার সঙ্গে শতাধিক নেতাকর্মী ফুটপাতে বসে স্লোগান দিচ্ছেন।

 

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.