The news is by your side.

বাংলা জ্বলছে, দেখে খারাপ লাগছে: স্বস্তিকা

0 57

 

 

চতুর্থ দফা ভোটে অশান্তি হয়েছে আসানসোলে। সংবাদমাধ্যম দেখা গিয়েছে সেই ছবি। এই ইস্যুতে উত্তাল হয়েছে শাসক-বিরোধী। কিন্তু তেমন কোনও প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি আসানসোলের তৃণমূল প্রার্থী মুনমুন সেনের মধ্যে।

ভোটের দিনই তাঁর প্রতিক্রিয়া চাওয়া হলে মুনমুন সেন বলেন, “আমার বেড টি-টা আজকে ওরা বড্ড দেরিতে দিয়েছে। ঘুম থেকে উঠতে অনেক দেরি হয়েছে। আমি কী বলব? আমি সত্যিই কিছু জানি না।” আর মুনমুনের এই মন্তব্য ক্ষুব্ধ টলিপাড়ার আর এক অভিনেত্রী।

স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় মুনমুনের এই মন্তব্য ভালভাবে নেননি। ট্যুইটারে স্বস্তিকা লিখেছেন, বাংলা ছাড়া আর দেশের আর কোথাও হিংসা নেই। আসানসোলের পরিস্থিতি নিয়ে রীতিমত উৎকন্ঠা প্রকাশ করেন তিনি।

স্বস্তিকা লেখেন,”বাংলা জ্বলছে, দেখে খারাপ লাগছে। সাধারণ মানুষকে মারধর করা হচ্ছে। ভোট না দিয়েই ফিরে আসছেন মানুষ।” স্বস্তিকা আরও লেখেন, ”আসানসোলবাসী নিরাপদে থাকুন। ভোট দেওয়ার জন্য বেরিয়ে একটাও প্রাণ যাক এটা কাম্য নয়। দেশের আর কোথাও এই ধরনের হিংসা হচ্ছে না। শুধুমাত্র বাংলায় এটা হচ্ছে।”

পাশাপাশি রাজনীতিবিদদেরও কটাক্ষ করেছেন অভিনেত্রী। স্বস্তিকার মতে, ”রাজনীতিতে যোগ দিলে আর কেউ মানুষ থাকে না। রাজনীতিবিদ হয়ে যান। রাজনীতিবিদরা মানুষও নন, প্রাণীও নন। তাঁর শুধুই রাজনীতিবিদ। রাজনীতিতে শুধুই অসংবেদনশীলতা, স্বার্থপরতা আর লোভ। দেশ সেবা ও দেশ সেখানে কোথাও নেই”।

মুনমুনের ‘বেড টি’ মন্তব্য প্রসঙ্গে স্বস্তিকা লিখেছেন,”আপনার বেড টি সময়ে আসেনি বলে হিংসার খবর পেলেন না? গরম কী মানুষকে উন্মাদ করে দিয়েছে? আমরা কী এভাবে দেশের জন্য পাগল রাজা আর রানি বেছে নেব!”

চতুর্থ দফায় ভোটের দিন সকালেই বাবুলের গাড়িতে হামলা চালানো হয়। ভাঙচুর চালানো হয় গাড়িতে। জেমুয়ায় ব্যাপক সংঘর্ষের ছবি ধরা পড়ে, যা রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায়। কিন্তু এরপরও আসানসোলের তৃণমূল প্রার্থী মুনমুন সেনের বক্তব্য ছিল, তিনি কিছুই জানেন না।

মুনমুনকে প্রশ্ন করা হলে, তিনি বলেন, ‘আমাকে দেরি করে বেড টি দিয়েছে, তাই ঘুম থেকে দেরি করে উঠেছি। কি বলব বল? আমি কিছুই জানি না। বাবুল তাঁর অভিযোগ প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করতেই মুনমুনের জবাব, ‘ওর নাম নেবে না। তাহলে আমি কথা বলব না।’

 

 

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.