বর্ষবরণে প্রস্তুত চারুকলা শিল্পিরা Reviewed by Momizat on . বাংলা পঞ্জিকার পাতায় চৈত্রের মাত্র কয়েকটি দিন বাকি। শেষ দিকে প্রকৃতির মেজাজও বদলে গেছে। সকালে রোদ নিয়ে দিন শুরু হলে দুপুরে মেঘলা আকাশ। বিকেলে হয়তো হালকা বৃষ্টি। বাংলা পঞ্জিকার পাতায় চৈত্রের মাত্র কয়েকটি দিন বাকি। শেষ দিকে প্রকৃতির মেজাজও বদলে গেছে। সকালে রোদ নিয়ে দিন শুরু হলে দুপুরে মেঘলা আকাশ। বিকেলে হয়তো হালকা বৃষ্টি। Rating: 0
You Are Here: Home » slider » বর্ষবরণে প্রস্তুত চারুকলা শিল্পিরা

বর্ষবরণে প্রস্তুত চারুকলা শিল্পিরা

akbar1_1

বাংলা পঞ্জিকার পাতায় চৈত্রের মাত্র কয়েকটি দিন বাকি। শেষ দিকে প্রকৃতির মেজাজও বদলে গেছে। সকালে রোদ নিয়ে দিন শুরু হলে দুপুরে মেঘলা আকাশ। বিকেলে হয়তো হালকা বৃষ্টি। কখনো কখনো চৈত্রের দাপটে বাইরে থাকা মানুষের মাথার ঘাম পায়ে নামে। তাতে বর্ষবরণ উতসবের প্রস্তুতি থেমে যায় না। চারুকলা অনুষদে থাকে উতসবমুখর পরিবেশ।

কর্মব্যস্ত চারুকলায় দেখা গেল অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন, শিশির ভট্টাচার্য্যসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকেরা মহা ব্যস্ত। তাঁরা চারুকলার বর্ষবরণ আবাহনের শিল্পকর্ম গড়ার নির্দেশনা দিচ্ছেন। বর্তমান শিক্ষার্থীদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কাজ করছেন সাবেক শিক্ষার্থীরাও। সরাচিত্র সৃজন, কাগজ কেটে নানান প্রক্রিয়ায় নির্মিত মুখোশ, কাগজের ম্যাশের মুখোশ, জলরঙে চিত্রকর্ম সৃজন ও শোভাযাত্রার মূল অনুষঙ্গ কাঠামো নির্মাণ—এই পাঁচটি ভাগে পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী সম্পৃক্ত রয়েছেন বিশাল এই আয়োজনে।

akbar

চারুকলা অনুষদ ঘুরে দেখা যায়, করিডরের উন্মুক্ত জায়গায় অস্থায়ীভাবে স্থাপিত বিশাল টেবিলের ওপর ছড়িয়ে আছে সারি সারি সরা। সেগুলোর ওপর রঙের প্রলেপ দিয়ে নানা অবয়ব ফুটিয়ে তুলছেন শিক্ষার্থীরা। সরাচিত্রে মূর্ত হচ্ছে চিরন্তন বাংলার ডোরাকাটা বাঘ, গাঁয়ের বধূর মুখচ্ছবি, সাপুড়ে, কাকতাড়ুয়া, হরেক রকমের পাখি, হাতি, লক্ষ্মীপ্যাঁচা, বিড়াল, বাঘ, রাখালসহ বৈচিত্র্যময় লোকজ নানা বিষয়। বিক্রি হচ্ছে ৩০০ থেকে ৫০০ টাকায়। সরাচিত্রের সঙ্গে রয়েছে পাখি, কাগজের ফুল, বাঘের ছোট মুখোশ। মুখোশগুলো বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৬০০ টাকায়। কাগজের পাখি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ২০০ টাকায়।

নানা আকৃতির জলরঙের ছবি থেকে আগ্রহীরা বেছে নিচ্ছেন পছন্দেরটা। শিক্ষার্থী সুদীপ্ত শিকদার জানালেন, ৫০০ থেকে শুরু হয়ে আড়াই হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে ছোট আকৃতির চিত্রকর্মগুলো। আর বড়গুলো বিক্রি হচ্ছে ৩ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকায়। সর্বোচ্চ ২ লাখ টাকা মূল্যের ছবিও থাকছে এখানে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে আর্ট ক্যাম্পের আয়োজন করে শিক্ষক ও প্রতিষ্ঠিত শিল্পীদের ছবি সংগ্রহ করা হবে বিক্রির জন্য।

শুধু চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরাই নন, নিজের আগ্রহে অনেকেই আসছেন এই কর্মযজ্ঞে শামিল হতে। পটুয়া নাজির হোসেন তেমনই একজন। লোকজ আঙ্গিকে বাঘের ছবি এঁকে আন্তর্জাতিক খ্যাতি পেয়েছেন এই শিল্পী। গভীর মনোযোগ দিয়ে আঁকছিলেন। জানালেন, প্রতিবছর স্বেচ্ছায় এখানে ছবি আঁকতে আসেন। তাঁর ছবিগুলো ১ হাজার থেকে শুরু করে ৩ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এই অর্থের পুরোটাই তহবিলে যোগ হচ্ছে।

অনুষদের মাঝখানে লিচুতলায় চলছে মঙ্গল শোভাযাত্রার কর্মযজ্ঞ। এ প্রাঙ্গণে নবীন-প্রবীণ শিক্ষার্থীরা কাজে মেতে আছেন। কেউ বাঁশ-কাঠ কাটাকুটি করছেন, কেউ কাগজ কাটছেন বিভিন্ন আকৃতির। কেউ আগুন জ্বেলে আঠা তৈরি করছেন। এবারের শোভাযাত্রায় থাকবে ১০ থেকে ১২টি শিল্পকাঠামো বা ভাস্কর্য। তবে এখনো সব প্রাথমিক পর্যায়ে আছে।

About The Author

admin

সংবাদের ব্যাপারে আমরা সত্য ও বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাস করি।বিশ্বাস করি, মুক্তিযুদ্ধের সুমহান চেতনায়। আমাদের প্রত্যাশা একাত্তরের চেতনায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাক সুখী সমৃদ্ধশালী উন্নত দেশের পর্যায়ে।

Number of Entries : 7228

Leave a Comment

সম্পাদক : সুজন হালদার, প্রকাশক শিহাব বাহাদুর কতৃক ৭৪ কনকর্ড এম্পোরিয়াম শপিং কমপ্লেক্স, ২৫৩-২৫৪ এলিফ্যান্ট রোড, কাঁটাবন, ঢাকা থেকে প্রকাশিত। ফোনঃ 02-9669617 e-mail: info@visionnews24.com
Design & Developed by Dhaka CenterNIC IT Limited
Scroll to top