উন্নয়নশীল দেশের পথে যাত্রা শুরু করায় প্রধানমন্ত্রীকে কাল সংবর্ধনা Reviewed by Momizat on . বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশের পথে যাত্রা শুরু করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সরকারের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে। আগামীকাল বৃহ বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশের পথে যাত্রা শুরু করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সরকারের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে। আগামীকাল বৃহ Rating: 0
You Are Here: Home » slider » উন্নয়নশীল দেশের পথে যাত্রা শুরু করায় প্রধানমন্ত্রীকে কাল সংবর্ধনা

উন্নয়নশীল দেশের পথে যাত্রা শুরু করায় প্রধানমন্ত্রীকে কাল সংবর্ধনা

muhit

বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশের পথে যাত্রা শুরু করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সরকারের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীকে এ সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

এ ছাড়া রাজধানীর নয়টি পয়েন্ট থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা বের হবে। এই শোভাযাত্রাগুলো প্রায় একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বিকেল ৩টায় পৌঁছাবে।

এরপর সেখানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। আঁধার নামার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হবে লেজার শো বা আলোর খেলা।

আজ বুধবার সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সব তথ্য জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

আগামী ২০২৪ সালে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমরা কিছু ক্রাইটেরিয়া পূর্ণ করায়, উন্নয়নশীল দেশে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য প্রাথমিক যোগ্যতা অর্জন করেছি। আমাদেরকে আরো ছয় বছর এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে। এই ধারাবাহিকতা যদি আমরা ধরে রাখতে পারি, ২০২৪ সালে  উন্নয়নশীল দেশে অন্তর্ভুক্ত হব। সেই পর্যন্ত জাতিসংঘের সংস্থার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা স্বল্পোন্নত দেশের তালিকাতেই থাকব।’

উদ্দীপ্ত, হাসি-খুশী মুহিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সাংবাদিকদের শুভেচ্ছা জানিয়ে আন্তর্জাতিক এ স্বীকৃতি উদযাপনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দেশের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ কেবল আবেদন করার যোগ্য হয়েছে, এখনও অনেক পথ বাকি; তারপরও উদযাপনের এত আয়োজন কেন?

এমন প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, “কেন নয়? আমরা অনেক নিচে ছিলাম; আমরা উপরে উঠছি এখন, আরও উপরে যাব। আমরা দেখিয়েছি আমরাও পারি। আমরা বরাবরই উৎসবপ্রিয় জাতি। ছোটখাটো কিছু হলেই আতশবাজি করা হয়। আমরা প্রাথমিকভাবে মনোনীত হলেও এটি আমাদের জন্য বিরাট অর্জন। আমাদের এখন কাজ বেড়েছে, দায়িত্ব বেড়েছে। আমাদের অনেক দূর যেতে হবে। এসব অনুষ্ঠান থেকে আমরা প্রেরণা পাব।”

সামনের চ্যালেঞ্জগুলো তুলে ধরে তিনি বলেন, “২০২৪ সাল পর্যন্ত আমরা এলডিসি থাকব। ২০১৮-২০২৪ সাল পর্যন্ত একটা ট্রানজিশনে থাকব। আমাদের মানসিকতাও পরিবর্তন করতে হবে। বেশি হারে আন্তর্জাতিক ঋণ নেওয়ার মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে।”

সেই সঙ্গে বাংলাদেশের সামনের সব সম্ভাবনা পুরোপুরি কাজে লাগানোর ওপর জোর দেন অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “মানসিকতার পরিবর্তনে ইতোমধ্যে আমরা পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছি। কোন খাতে কত ঋণ নেব, সে বিষয়ে সাবধান হতে হবে।”

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের যোগ্যতা অর্জনের বিষয়টি বাংলাদেশকে জাতিসংঘ জানায় ১৭ মার্চ। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বাংলাদেশ মিশনকে সেদিন ওই স্বীকৃতিপত্র হস্তান্তর করা হয়।

অর্থমন্ত্রী জানান, ওই স্বীকৃতিপত্র মঙ্গলবার দেশে এসেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তা হস্তান্তর করা হবে।

সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এই স্বীকৃতির উদযাপন হবে ৭ দিন ধরে। ২০ মার্চ থেকে ২৬ মার্চ উৎসব চলবে।

২২ মার্চ সকালে প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া হবে সংবর্ধনা, বিকালে রাজধানীর নয়টি অঞ্চল থেকে শোভাযাত্রা যাবে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে; হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ওই সপ্তাহে সরকারের সব দপ্তর বা বিভাগ একটি সেবা ফ্রি দেবে।

About The Author

admin

সংবাদের ব্যাপারে আমরা সত্য ও বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাস করি।বিশ্বাস করি, মুক্তিযুদ্ধের সুমহান চেতনায়। আমাদের প্রত্যাশা একাত্তরের চেতনায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাক সুখী সমৃদ্ধশালী উন্নত দেশের পর্যায়ে।

Number of Entries : 7902

Leave a Comment

সম্পাদক : সুজন হালদার, প্রকাশক শিহাব বাহাদুর কতৃক ৭৪ কনকর্ড এম্পোরিয়াম শপিং কমপ্লেক্স, ২৫৩-২৫৪ এলিফ্যান্ট রোড, কাঁটাবন, ঢাকা থেকে প্রকাশিত। ফোনঃ 02-9669617 e-mail: info@visionnews24.com
Design & Developed by Dhaka CenterNIC IT Limited
Scroll to top