ঢাবিতে পুশকিনের আবক্ষ মূর্তি Reviewed by Momizat on . আধুনিক রুশ সাহিত্যের জনক ও সর্বশ্রেষ্ঠ কবি আলেকজান্ডার সের্গেইয়েভিচ পুশকিন। রুশ সাহিত্যের এই দিকপালের আবক্ষ মূর্তি স্থাপিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নবাব আধুনিক রুশ সাহিত্যের জনক ও সর্বশ্রেষ্ঠ কবি আলেকজান্ডার সের্গেইয়েভিচ পুশকিন। রুশ সাহিত্যের এই দিকপালের আবক্ষ মূর্তি স্থাপিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নবাব Rating: 0
You Are Here: Home » slider » ঢাবিতে পুশকিনের আবক্ষ মূর্তি

ঢাবিতে পুশকিনের আবক্ষ মূর্তি

153f9401bec220d3712b6980cad89188-0D7A5817
আধুনিক রুশ সাহিত্যের জনক ও সর্বশ্রেষ্ঠ কবি আলেকজান্ডার সের্গেইয়েভিচ পুশকিন। রুশ সাহিত্যের এই দিকপালের আবক্ষ মূর্তি স্থাপিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে।
রুশ ভাষা দিবস ও আলেকজান্ডার পুশকিনের ২১৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মূর্তিটি স্থাপন করা হয়। বাংলাদেশ ও রাশিয়ার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের স্মারক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে এটি উপহার দিয়েছে রাশিয়ান রাইটার্স ইউনিয়নের পুশকিন শাখা।
মঙ্গলবার ব্রোঞ্জ নির্মিত আবক্ষ মূর্তিটি উন্মোচনের সময় উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বাংলাদেশে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার আই. ইগনাতভ, রাশিয়ান রাইটার্স ইউনিয়নের পুশকিন শাখার সেক্রেটারি ইগোর নভোস্কভ, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান এবং ঢাকায় রাশিয়ান বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্রের পরিচালক আলেক্সান্ডার ডেমিন।
প্রসঙ্গত, পুশকিনের জন্ম মস্কোয়, ১৭৯৯ সালের ২৬ মে। মৃত্যু ১৮৩৭ সালের ২৯ জানুয়ারি। তার বাবা সের্গিয়েইয়ের পরিবার ছিল অন্তত ছশ’ বছরের পুরনো রুশ প্রাচীন অভিজাত বংশগুলোর একটি। আর মা ছিলেন সম্রাট পিওৎর ভেলিকি-যাকে আমরা পিটার দ্য গ্রেট হিসেবে জানি, তার অতি ঘনিষ্ঠ ও নির্ভরযোগ্য রাজন্য আব্রাহম গানিবালের দৌহিত্রী। মাত্র ৩৮ বছরের জীবনে পুশকিন রুশ ভাষা ও সাহিত্যে একাধারে আধুনিক কাব্যভাষা, বাস্তববাদ, গদ্যকাহিনী, ট্রাজেডি, কাব্যনাট্য প্রভৃতির জনক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন।
মূর্তি উন্মোচনের পর ঢাবির অধ্যাপক আবদুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ঢাবি, বাংলাদেশের রাশিয়ান ফেডারেশন এবং রাশিয়ান বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি কেন্দ্র।
এ সময় আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘আলেকজান্ডার পুশকিন শুধু রুশ লেখক নন, তিনি বিশ্বসাহিত্যেরও মহান ব্যক্তিত্ব। সপ্তদশ শতাব্দীর এই মহান লেখকের সৃষ্টির প্রভাব আজও বিদ্যমান।’
ড. আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ‘বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যে ঐতিহাসিক বন্ধত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজমান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে রাশিয়ার প্রধান কবি পুশকিনের ভাস্কর্য স্থাপনের মধ্য দিয়ে দু’দেশের এই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও জোরদার হবে।’
অনুষ্ঠানে রাশিয়ান রাইটার্স ইউনিয়ন পুশকিন শাখার সেক্রেটারি ইগোর নভোস্কভকে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্রেস্ট’ উপহার দেওয়া হয়।

About The Author

admin

সংবাদের ব্যাপারে আমরা সত্য ও বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাস করি।বিশ্বাস করি, মুক্তিযুদ্ধের সুমহান চেতনায়। আমাদের প্রত্যাশা একাত্তরের চেতনায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাক সুখী সমৃদ্ধশালী উন্নত দেশের পর্যায়ে।

Number of Entries : 7228

Leave a Comment

সম্পাদক : সুজন হালদার, প্রকাশক শিহাব বাহাদুর কতৃক ৭৪ কনকর্ড এম্পোরিয়াম শপিং কমপ্লেক্স, ২৫৩-২৫৪ এলিফ্যান্ট রোড, কাঁটাবন, ঢাকা থেকে প্রকাশিত। ফোনঃ 02-9669617 e-mail: info@visionnews24.com
Design & Developed by Dhaka CenterNIC IT Limited
Scroll to top