ডেমোক্র্যাটদের ঐক্যবদ্ধ করার চ্যালেঞ্জ হিলারির Reviewed by Momizat on . যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথমবারের মতো প্রার্থী মনোনীত হয়ে হিলারি ক্লিনটন যেমন ইতিহাস গড়েছেন, তেমনি তার সামনে এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ নিজ দল ডেমোক্ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথমবারের মতো প্রার্থী মনোনীত হয়ে হিলারি ক্লিনটন যেমন ইতিহাস গড়েছেন, তেমনি তার সামনে এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ নিজ দল ডেমোক্ Rating: 0
You Are Here: Home » slider » ডেমোক্র্যাটদের ঐক্যবদ্ধ করার চ্যালেঞ্জ হিলারির

ডেমোক্র্যাটদের ঐক্যবদ্ধ করার চ্যালেঞ্জ হিলারির

untitled-6_217233

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথমবারের মতো প্রার্থী মনোনীত হয়ে হিলারি ক্লিনটন যেমন ইতিহাস গড়েছেন, তেমনি তার সামনে এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ নিজ দল ডেমোক্রেটিক পার্টিকে এক ছাতার তলে ধরে রাখা। কারণ, হিলারি প্রয়োজনীয় ডেলিগেট সমর্থন অর্জন করলেও দলের মনোনয়নযুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডার্স পরাজয় স্বীকার করে নেননি। তিনি দলীয় কনভেনশন পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এতে প্রকারান্তরে দুই ভাগ হয়ে পড়েছেন ডেমোক্র্যাটরা। এরই মধ্যে স্যান্ডার্সের সমর্থকদের দলে টানতে চেষ্টা করছেন রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্পও।
ডেমোক্রেটিক পার্টির মনোনয়ন লড়াইয়ে মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের প্রাইমারিতে জিতেই প্রার্থিতা নিশ্চিতের জন্য ২৩৮৩ ডেলিগেট অতিক্রম করে গেছেন হিলারি ক্লিনটন। নিউ জার্সি ছাড়াও ক্যালিফোর্নিয়া, নিউ মেক্সিকো ও সাউথ ডেকোটায় জিতেছেন তিনি। এতে তার মোট ডেলিগেট হয়েছে ২৭৫৫। দুই রাজ্য মন্টানা ও নর্থ ডেকোটায় জিতেছেন বার্নি স্যান্ডার্স। এতে তার মোট হয়েছে ১৮৫২ ডেলিগেট। প্রাইমারি ভোটে ডেলিগেট সমর্থনে হিলারির মনোনয়ন নিশ্চিত হলেও ডেমোক্রেটিক পার্টির পক্ষ থেকে এখনও মনোনয়ন নিশ্চিত করা হয়নি। এখন শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার অপেক্ষা। তবে বার্নি স্যান্ডার্স শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। আগামী মঙ্গলবার ওয়াশিংটন ডিসিতে দলের শেষ প্রাইমারি পর্যন্ত তিনি লড়াই চালিয়ে যাবেন। এতে স্বভাবতই হিলারি সমর্থক ও স্যান্ডার্স সমর্থক_ দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন ডেমোক্র্যাটরা। স্যান্ডার্স সমর্থকরা শেষ পর্যন্ত হিলারিকে প্রেসিডেন্ট পদে সমর্থন করবেন কি-না, সেটিই এখন হিলারির জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। কিন্তু রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে হিলারিকে জিততে হলে অবশ্যই ডেমোক্র্যাটদের ঐক্য দরকার। বিভিন্ন সময়ে জরিপে স্যান্ডার্স সমর্থক বা ডেমোক্র্যাটদের অনেকেই হিলারিকে সমর্থন দেবেন না বলে জানা গেছে। তাদেরও নিজের দিকে ফেরাতে হবে হিলারিকে।

এ বিষয়ে ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনৈতিক বিশ্লেষক ল্যারি সাবাটো বলেন, হিলারির সামনে বড় বাধা বার্নি স্যান্ডার্স ও তার সমর্থকরা। তাদের নিজের দিকে টানতে হবে তাকে। তাতেই রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তার লড়াই সহজ হবে। হিলারির একার পক্ষে ট্রাম্পকে কুপোকাত করা সহজ হবে না। স্যান্ডার্সের সমর্থন অবশ্যই লাগবে। যদিও স্যান্ডার্সকে কাছে টানার কাজ শুরু করেছেন হিলারি। ছয় রাজ্যে ভোটের পর হিলারি তার নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়া সবাইকে ধন্যবাদ জানান। একই সঙ্গে স্যান্ডার্সকে শুভেচ্ছা জানান এবং যৌথভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, একসঙ্গে আমরা আরও বেশি শক্তিশালী। আসুন আমরা সামনে এগিয়ে যাই। এ সময় ট্রাম্পকে প্রার্থী হিসেবে অযোগ্য বলেও উল্লেখ করেন হিলারি।

About The Author

admin

সংবাদের ব্যাপারে আমরা সত্য ও বস্তুনিষ্ঠতায় বিশ্বাস করি।বিশ্বাস করি, মুক্তিযুদ্ধের সুমহান চেতনায়। আমাদের প্রত্যাশা একাত্তরের চেতনায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাক সুখী সমৃদ্ধশালী উন্নত দেশের পর্যায়ে।

Number of Entries : 7228

Leave a Comment

সম্পাদক : সুজন হালদার, প্রকাশক শিহাব বাহাদুর কতৃক ৭৪ কনকর্ড এম্পোরিয়াম শপিং কমপ্লেক্স, ২৫৩-২৫৪ এলিফ্যান্ট রোড, কাঁটাবন, ঢাকা থেকে প্রকাশিত। ফোনঃ 02-9669617 e-mail: info@visionnews24.com
Design & Developed by Dhaka CenterNIC IT Limited
Scroll to top