শীর্ষ সংবাদ সু-প্রভাত ও জাবালে নূরের বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণাতৃণমূল পর্যন্ত পালিত  হবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী: প্রধানমন্ত্রীদাবি না মানা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে : শিক্ষার্থীরাওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি সফলওবায়দুল কাদেরের বাইপাস সার্জারি বুধবার'স্বাধীনতা বিরোধী চক্র যেন আর ক্ষমতায় আসতে না পারে'নেদার‍ল্যান্ডসে ট্রামে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে একযোগে কাজ করার আহ্বান শেখ হাসিনা ওট্রুডোরভোট গ্রহণ চলছে ১১৬ উপজেলায়ক্রাইস্টচার্চের বন্দুকধারীকে জাপটে ধরা সেই ব্যক্তির মৃত্যুক্রাইস্টচার্চে নিহত চার বাংলাদেশীর পরিচয় মিলেছেবঙ্গবন্ধুর সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাউচ্চ করহারে উদ্বেগ ব্যবসায়ীদেরপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  মাঝে মায়ের ছায়া দেখতে পাই: নুরসন্ত্রাস চিরতরে বন্ধ করার ব্যবস্থা নিন: বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি প্রধানমন্ত্রীক্রাইস্টচার্চে ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে ওবামার বার্তাক্রাইস্টচার্চে  নিহত বাংলাদেশী আবদুস সামাদের স্ত্রী জীবিত আছেনকাঁচপুর সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রীনিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলা, রক্ষা পেল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলটাঙ্গাইলে কুমুদিনী কমপ্লেক্সে ৩১ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রীশিশুদের শিক্ষার জন্য অতিরিক্ত চাপ দেওয়া উচিত নয়: প্রধানমন্ত্রীব্রেক্সিট: আবারো হারলেন টেরিজা মেরিজার্ভ চুরি: এবার বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে আরসিবিসির মামলাচকবাজার অগ্নিকাণ্ড : দোলার মরদেহ শনাক্তডাকসু নির্বাচন: ভিপি নূরকে শোভনের অভিনন্দনভারত: লোকসভা নির্বাচন ১১ এপ্রিল থেকে, ফল ঘোষণা ২৩ মেডাকসু নির্বাচন: ১৮ হলে ৫০৮ বুথ১৫৭ জনকে নিয়ে ভেঙে পড়ল ইথিওপিয়ার বিমানবিএসএমএমইউতে যেতে রাজি নন খালেদা জিয়াঅধস্তন আদালতে বিচারাধীন ফৌজদারি মামলা ১৭ লাখ ১১ হাজার ৬১৮টি !লোকসভা নির্বাচন: আজই ঘোষণা হতে পারে ভোটগ্রহণের সূচি'আইএস বধূ' শামীমার ‘অন্যায়ের’ জন্য  ক্ষমা চাইলেন বাবামেক্সিকোতে নাইটক্লাবে গোলাগুলি, নিহত ১৫জাপানে তিমির সাথে ধাক্কা:  ফেরির ৮০ যাত্রী আহতপরকীয়ার জন্য দায়ী মেগাসিরিয়াল  ওবায়দুল কাদেরকে সোমবার আইসিইউ থেকে কেবিনে নেয়ার সম্ভাবনাপাকিস্তান থেকে অন্য দেশে জঙ্গি কার্যকলাপ চালানো হবে না!

নারী উদ্যোক্তাদের ঋণ: ডকুমেন্টসের নামে  হয়রানি

News Room - মার্চ ১০, ২০১৯ ৫:১০ এ.এম - বিভাগ: অর্থনীতি - 0 মন্তব্য

নারী উদ্যোক্তাদের ঋণ: ডকুমেন্টসের নামে  হয়রানি

 

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের নানা পদক্ষেপে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে নারীদের ঋণ পাওয়ার সুযোগ-সুবিধা এখন অনেক বেড়েছে। প্রতিবছর যে হারে নারী উদ্যোক্তা বাড়ার কথা বাস্তবে তা হচ্ছে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাবে গত ৯ বছরে ৪ লাখ ৬২ হাজার নারী উদ্যোক্তা বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের (এসএমই) আওতায় ঋণ পেয়েছেন। এর মধ্যে ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর এই ৯ মাসে পেয়েছেন ৪৬ হাজারের মতো; যার মধ্যে নতুন উদ্যোক্তা রয়েছেন মাত্র ১০ হাজার।

এ ছাড়া এসএমই খাতে নারী উদ্যোক্তাদের মাঝে ১০ শতাংশ ঋণ বিতরণের বাধ্যবাধকতা থাকলেও কোনো বছরই তা ৫ শতাংশের বেশি অর্জিত হয়নি। ২০১৭ সালে এসএমই খাতে বিতরণ হওয়া ঋণের মাত্র ২.৯৫ শতাংশ পান নারী উদ্যোক্তারা। আর ২০১৮ সালের ৯ মাসে এই হার একটু বেড়ে দাঁড়িয়েছে সাড়ে ৩ শতাংশে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এই পরিসংখ্যান বলছে, এসএমই খাতে নারী উদ্যোক্তাদের সংখ্যা ও ঋণ বিতরণ আশানুরূপ নয়। এর পেছনে বড় বাধা হিসেবে কাজ করে নারী উদ্যোক্তাদের অর্থায়নের ক্ষেত্রে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জুড়ে দেওয়া নানা শর্তের বেড়াজাল। প্রতিষ্ঠিত নারী উদ্যোক্তাদের ক্ষেত্রে এসব শর্ত পূরণ করা সহজ হলেও হয়রানি ও ভোগান্তিতে পড়েন নতুনরা। এ ছাড়া ৯ শতাংশ পুনরর্থায়ন ঋণ দেওয়ার কথা থাকলেও গোপন চার্জসহ সেটা গিয়ে ১৩ শতাংশে উঠে বলেও অভিযোগ রয়েছে। ফলে ইচ্ছা থাকলেও ঋণসুবিধার অভাবে শুরুতেই ভেঙে যাচ্ছে অনেকের উদ্যোক্তা হওয়ার লালিত স্বপ্ন।

নারী উদ্যোক্তারা বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের বিদ্যমান নীতিমালায় নারী উদ্যোক্তাদের সহজ শর্তে ও বিনা জামানতে ঋণ দেওয়ার কথা বলা হলেও বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো সবার ক্ষেত্রে সেগুলো যথাযথভাবে পরিপালন করছে না। উল্টো ঋণ আবেদনের সঙ্গে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টসের নামে নানা শর্ত জুড়ে দিয়ে তাদের হয়রানি ও ভোগান্তিতে ফেলছেন। এতে নতুনদের পক্ষে ঋণ পাওয়া দুষ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে প্রতিষ্ঠিত নারী উদ্যোক্তাদের ক্ষেত্রে এ সমস্যা তেমন হয় না। কারণ তাঁদের ঋণ দিতে প্রতিষ্ঠানগুলো মুখিয়ে থাকে। বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে নারী উদ্যোক্তারা ঋণ পান না এমন ঢালাও অভিযোগ ঠিক নয়। এ ছাড়া ঋণ পেতে নানা হয়রানির যে অভিযোগ করা হয় তাও পুরোপুরি সত্য নয়। বিশেষ করে ঋণ আবেদনে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সরবরাহ করার যে বাধ্যবাধকতা রয়েছে, সেটা পরিপালন করার বিষয়টিকে হয়রানি হিসেবে দেখা ঠিক হবে না।

নারী উদ্যোক্তাদের সংগঠন ওমেন ওয়েন্ডের প্রেসিডেন্ট ড. নাদিয়া বিনতে আমিন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সরকার নারী উদ্যোক্তাদের জন্য সহজ শর্তে ও কম সুদে ঋণ প্রদানের নীতিমালা প্রণয়ন করলেও নারী উদ্যোক্তারা এই সুবিধা পাচ্ছেন না। ব্যাংকঋণের ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত জটিলতা নানাবিধ শর্তের বেড়াজাল এবং উচ্চ সুদের কারণে প্রতিনিয়ত পুঁজি সংগ্রহে হিমশিম খাচ্ছে।

‘আইঅ্যামএসএমই অব বাংলাদেশ’ নামের সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাফিয়া শ্যামা বলেন, ব্যাংকগুলো শুধু প্রতিষ্ঠিত উদ্যোক্তাদের ঋণ দিতে চায়। কিন্তু যাঁরা নতুন, তাঁদের ক্ষেত্রে অনীহা দেখায়। বিশেষ করে বাংলাদেশ ব্যাংকের পুনরর্থায়ন তহবিলের আওতায় ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত যে জামানতবিহীন ঋণ দেওয়ার কথা বলা আছে, সেই ঋণ পেতে গ্যারান্টার একজন নয়, একাধিক গ্যারান্টার চায় ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই অ্যান্ড স্পেশাল প্রগ্রামস বিভাগের মহাব্যবস্থাপক শেখ মো. সেলিম বলেন, দেশের অর্থনীতিতে এসএমই খাতের উল্লেখযোগ্য অবদান বিবেচনায় এটাকে প্রাইমারি সেক্টর হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এ খাতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ঋণ বিতরণের একটা সীমাও বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এ খাতে মোট বিতরণ হওয়া ঋণের কমপক্ষে ১০ শতাংশ নারী উদ্যোক্তাদের দিতে হবে। তিনি বলেন, ব্যাংক কাউকে টাকা দেবে তখনই, যখন নিয়মমাফিক সব কিছু পরিপালিত হবে। প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ঘাটতি থাকলে ঋণ দিতে অনীহা দেখাতেই পারে তারা। তবে এটাকে হয়রানি হিসেবে নেওয়া ঠিক হবে না।

 

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *