The news is by your side.

অনেকেই ভেবে নেয়, সিঙ্গল মানেই সহজলভ্য ! মধুমিতা সরকার

0 57

 

 

প্র: মধুমিতার রিলেশনশিপ স্টেটাস এই মুহূর্তে কী?
উ: আমি সিঙ্গল। কাজ ছাড়া অন্য কোনও রকম সম্পর্ক থেকে এখন অনেক দূরে। তবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার পিছনে খানিকটা হলেও আমার সঙ্গে হওয়া বিশ্বাসঘাতকতা দায়ী। তবে এ-ও মনে করি, এত বিশ্বাস করে লাভ কী!

প্র: সিঙ্গল বলে ইন্ডাস্ট্রিতে কোনও অসুবিধের সম্মুখীন হতে হয়েছে?
উ: অনেকেই ভেবে নেয়, সিঙ্গল মানেই সহজলভ্য। তাড়াতাড়ি কাছে আসার সুযোগ নিতে চায়। তবে ভাল দিকও আছে। আমি যে কাজগুলো করব, তার ভাল-মন্দের দায়ও আমার একার।

প্র: এ জন্যই কি চিনিকে (ছবির চরিত্র) বুঝতে বেশি সুবিধে হয়েছে?
উ: চিনি কোনও নতুন চরিত্র নয়। চরিত্রটার সঙ্গে রিলেট করা খুব সহজ। এমন একটা গল্প প্রত্যেকের জীবনে বা আশপাশে কখনও না কখনও ঘটেছেই।

প্র: এই মুহূর্তে সিনেমা হলে ছবি মুক্তি পাওয়াটা কি ঝুঁকিপূর্ণ?
উ: ছবি রিলিজ় হওয়াটাও খুবই জরুরি। ছবি কোন সময়ে মুক্তি পেলে ভাল চলবে, তা কি আগে থেকে বলা যায়? এই ছবি প্রমাণ করবে, কত জন দর্শক হলে গিয়ে দেখবেন আর কত জন ওটিটিতে দেখবেন।

প্র: ‘পাখি’ চরিত্রটি করার সময়ে মধুমিতা সরকারের যে সারল্য ছিল, তা এখন অনেকটাই বদলে গিয়েছে। এই ম্যাচিয়োরিটি কি অভিজ্ঞতা থেকে পাওয়া?
উ:  জীবনে এত বড় অভিজ্ঞতার মুখোমুখি না হলে হয়তো আমার মধ্যে কাজ করার আগুনটা জ্বলে উঠত না। যে কোনও মানুষকে পরিণত করে তোলে তার জীবনে ঘটে যাওয়া ঘটনা। আমার জীবনেও হয়তো তার দরকার ছিল। যে সময়টা নষ্ট করেছি, সেটাই আমাকে পরিণত করেছে।

প্র: সোশ্যাল মিডিয়ায় বোল্ড লুকে ছবি পোস্ট করছেন। এর জন্য ট্রোলডও হচ্ছেন…
উ: ‘পাখি’র ইমেজ ভাঙতে সময় লেগেছে। কেরিয়ারের গোড়ার দিকের মিষ্টি ইমেজটা ভাঙতে চাই। তাই নানা ধরনের ছবি পোস্ট করি। কমেন্টস নিয়ে আমার মাথাব্যথা নেই। কোনও কমেন্টই পড়ি না।

প্র: শোনা যায়, আপনার প্রিয় মানুষ আপনার মা। প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার নেপথ্যে আপনার মায়ের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে…
উ: মায়ের সঙ্গে আমার যত বন্ধুত্ব, ততটাই ঝগড়া। আমার যতটা না ইগো, মায়ের তার চেয়েও বেশি। আমার চেয়েও মা বেশি আঘাত করে কথা বলে আমাকে। তার পরে দু’জনেই ভুল বুঝে ‘সরি’ বলি। কিন্তু আমার আর সৌরভের (চক্রবর্তী) মধ্যে মা কখনও আসেনি। এটা ছিল আমাদের দু’জনের সিদ্ধান্ত।

প্র: অভিনয়ের খিদে নিয়ে ছোট পর্দা ছেড়েছিলেন। আজকের অনিশ্চিত পরিস্থিতিতে কি আবার ছোট পর্দা আপনাকে টানছে?
উ: টাকার মায়া ত্যাগ করে বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পেতেই সিরিয়াল ছেড়ে বড় পর্দায় আসি। তাই সিরিয়ালে ফেরার কোনও ইচ্ছে নেই। নন ফিকশনে সুযোগ এলে নিশ্চয় করব। নতুন ছবির কাজও শুরু হবে।

প্র: পরের বছর অভিনয়ের কোর্স করতে আমেরিকা যাচ্ছেন?
উ: সব কিছু ঠিক থাকলে সামনের বছর মার্চ বা জুনে আমেরিকায় অভিনয় নিয়ে একটা শর্ট কোর্স করতে যাব। এই লকডাউনেও অনলাইনে অনেক কোর্স করেছি, ফিল্মের টেকনিক্যাল দিকগুলোর ব্যাপারে জানার ইচ্ছে থেকেই।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.